মঙ্গলবার, ২৬ এপ্রিল ২০২২, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন

ইলন মাস্কের প্রস্তাবে রাজি টুইটার, চুক্তি হতে পারে আজই

ইলন মাস্কের কাছে ৪ হাজার ৩০০ কোটি ডলারে বিক্রি হয়ে যাওয়ার প্রস্তাবে রাজি হয়েছে টুইটার। সব ঠিকঠাক থাকলে সোমবারই (২৫ এপ্রিল) এ বিষয়ে চূড়ান্ত চুক্তি হতে পারে। সংশ্লিষ্টদের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানিয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, পরিচালনা পর্ষদের বৈঠকের পর ইলন মাস্কের প্রস্তাব অনুসারে প্রতিটি শেয়ার ৫৪ দশমিক ২০ ডলারে বিক্রি করতে শেয়ারেহোল্ডারদের প্রতি সুপারিশের ঘোষণা দিতে পারে টুইটার কর্তৃপক্ষ। তবে শেষ মুহূর্তে গিয়ে চুক্তিটি ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না বলেও জানিয়েছে সূত্রটি।

গত ৯ এপ্রিল টুইটারের নয় শতাংশ শেয়ার কিনে প্রতিষ্ঠানটির সবচেয়ে বড় শেয়ারহোল্ডার হয়ে ওঠেন ইলন মাস্ক। এর পরের সপ্তাহে টুইটার কিনতে ৪ হাজার ৩০০ কোটি ডলারের প্রস্তাব দেন টেসলা সিইও।

তবে ইলন মাস্কের কাছে বিক্রি ঠেকাতে ‘পয়জন পিল’ নামে একধরনের পাল্টা ব্যবস্থা নেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ, যাতে প্রতিষ্ঠানটির দাম আরও বেশি হয়ে পড়ে। কিন্তু শেষমেষে তারা সেই অবস্থান থেকে সরে এসেছে বলে জানা গেছে।

একসময় গুঞ্জন ছড়িয়েছিল, টুইটার কেনার মতো যথেষ্ট নগদ অর্থ মাস্কের কাছে নেই। তবে দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট জানিয়েছে, টুইটার কেনার জন্য পর্যাপ্ত অর্থ এরই মধ্যে জোগাড় করে ফেলেছেন বর্তমান বিশ্বের শীর্ষ ধনী।

এর আগে, গত ১৪ এপ্রিল টুইটার কিনতে ৪ হাজার ৩০০ কোটি ডলার খরচ করার প্রস্তাব দেন ইলন মাস্ক। এর প্রতিটি শেয়ার ৫৪ দশমিক ২০ ডলারে কিনে নেওয়ার প্রস্তাব দেন তিনি, যা সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্টের গত ১ এপ্রিলের শেয়ারদরের তুলনায় অন্তত ৩৮ শতাংশ বেশি।

প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে ইলন মাস্ক বলেন, টুইটারের অসাধারণ সম্ভাবনা রয়েছে, আমি এটি প্রকাশ করতে চাই। তিনি বলেন, বিনিয়োগ করার পর আমি বুঝতে পারছি, টুইটার এর বর্তমান গঠনপ্রক্রিয়ায় না উন্নতি করবে, না সামাজিক বাধ্যবাধকতা পূরণ করবে। টুইটারকে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরিত করতে হবে।

নিজেকে বাকস্বাধীনতার পক্ষে দাবি করা এ মার্কিন ধনকুবের আগে থেকেই টুইটারের বিভিন্ন নীতির সমালোচনা করে আসছেন। টুইটার চেয়ারম্যানের কাছে পাঠানো চিঠিতে মাস্ক বলেন, এটিই আমার সেরা ও শেষ প্রস্তাব। এটি গৃহীত না হলে শেয়ারহোল্ডার হিসেবে অবস্থান পুনর্বিবেচনা করতে বাধ্য হবো।

এর আগে টুইটারের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য হওয়ার একটি প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন টেসলা সিইও। বিশ্লেষকরা তখন থেকেই ধারণা করছিলেন, এই বিলিয়নিয়ার হয়তো টুইটারে আরও বড় কোনো পদ চান। কারণ পর্ষদের সদস্য হলে তিনি সর্বোচ্চ ১৫ শতাংশ শেয়ারের মালিক হতে পারতেন।

সূত্রের বরাতে রয়টার্স জানিয়েছে, গোল্ডম্যান স্যাশ ও উইলসন সোনসিনি গুডরিচ এবং রোসাটির পরামর্শ নিয়ে ইলন মাস্কের এই প্রস্তাব পর্যালোচনা করবে টুইটার। আর ইলন মাস্কের পরামর্শক হিসেবে কাজ করছে বিনিয়োগ ব্যাংক মরগান স্ট্যানলি।

টুইটার বিক্রির চূড়ান্ত চুক্তির বিষয়ে এখন পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। ইলন মাস্কও মন্তব্যের অনুরোধে সাড়া দেননি।



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ