মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০২:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বিরামপুরে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত মধুপুরের মহিষমারা নেদুর বাজারে চক্ষু ক্যাম্প অনুষ্ঠিত উপকূলে জলোচ্ছ্বাস, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সংকেত বন্ধুর মাথায় ডিম ভেঙে জন্মদিন পালন, আটক ৬ পণ্যর দাম বৃদ্ধিতে আন্দোলন করলে গ্রেফতার না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ঘুষ নেয়ার দায়ে টেকনাফে স্কুল শিক্ষক দায়িত্ব থেকে বহিষ্কার! ছাত্রের মাকে হত্যায় জড়িতদের শাস্তির দাবিতে সড়কে শিক্ষার্থীরা জ্বালানি তেল, গ্যাস,বিদ্যুৎ, সারসহ নৃত্য প্রয়োজনে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল। মাদারীপুরের কালকিনীতে যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার। বিপুল পরিমাণ চোলাই মদসহ নারী আটক

কমলাপুরে আজও টিকিটপ্রত্যাশীদের উপচেপড়া ভিড়

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে সকাল ৮টা থেকে পঞ্চম দিনের মতো ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। এদিন দেওয়া হচ্ছে আগামী ১ মের ঈদযাত্রার আগাম টিকিট।

১ মের অগ্রিম টিকিট পেতে মঙ্গলবার থেকেই অনেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন।

তবে গত কয়েক দিনের তুলনায় টিকিটপ্রত্যাশীদের ভিড় কিছুটা কম দেখা গেছে আজ। এদিকে যাত্রীদের সুবিধার্থে নতুন করে যুক্ত হয়েছে ঈদ স্পেশাল ট্রেন। লাইনে দাঁড়ানো যাত্রীদের আশা, সবাই টিকিট নিয়েই ফিরতে পারবেন।

বুধবার সকালে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

স্টেশন ঘুরে দেখা যায়, আগে থেকেই যাত্রীরা নিজ উদ্যোগে লাইনে দাঁড়ানোর সিরিয়াল লিখে রেখেছেন। সবাই যাতে সিরিয়াল মেনে টিকিট নিতে পারেন এ জন্যই তারা এমনটি করেছেন। এ কাজে তাদের সহযোগিতা করছেন রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী বা আরএনবি। লাইনের বাইরে কেউ যেতে চাইলেই পেছন থেকে অন্যরা চিৎকার করে বাধা দিচ্ছেন। এতে কেউ লাইনের আগে যেতে সাহস করছেন না।

এছাড়া লাইন ঠিকঠাক রাখতে কিছুক্ষণ পর পরই বাঁশি বাজিয়ে সতর্ক করছেন আরএনবি এবং আনসার সদস্যরা। কালোবাজারে যেন টিকিট বিক্রি সে জন্য স্টেশন এলাকায় নিয়োজিত রয়েছেন র‌্যাব, পুলিশ, ডিএমপি পুলিশসহ আনসার সদস্যরা। র্যাব-পুলিশের বুথও রয়েছে স্টেশন এলাকায়।

এক টিকিট নেওয়ার অপেক্ষায় থাকা শাহ আলম বলেন, সড়ক-মহাসড়কে প্রচুর যানজট থাকে। এর পরও বাসের টিকিটের জন্য চেষ্টা করেছিলাম কিন্তু টিকিট পাইনি। তাই ট্রেনের টিকিটের জন্য দুই বন্ধু স্টেশনেই রাত পার করেছি।

অপর টিকিটপ্রত্যাশী শোভন বলেন, এবারের ঈদযাত্রায় সড়কে প্রচুর যানজটের সৃষ্টি হবে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে আগেই নিউজ দেখেছি। এ জন্য বাসের টিকিটের জন্য চেষ্টা করিনি। স্টেশনে আমরা কয়েকজন দুদিন ধরে অপেক্ষা করছি টিকিট পেতে। ঈদে ট্রেনযাত্রায় তেমন সমস্যা তৈরি হয় না, আবার ভাড়ার পরিমাণও কম। আমাদের জন্য ট্রেনযাত্রাই নিরাপদ। মঙ্গলবার টিকিট পাইনি, আশা করি আজ টিকিট পাব, গ্রামে পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে পারব।

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ২৩ এপ্রিল থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়। ২৪ এপ্রিল দেওয়া হয় ২৮ এপ্রিলের টিকিট, ২৫ এপ্রিল দেওয়া হয় ২৯ এপ্রিলের টিকিট, ২৬ এপ্রিল দেওয়া হয় ৩০ এপ্রিলের টিকিট। আর আজ ২৭ এপ্রিল দেওয়া হচ্ছে ১ মের টিকিট।

এ ছাড়া ৩ মে ঈদ হলে ২৮ এপ্রিল বিক্রি হবে ২ মের ট্রেনের টিকিট। ঈদযাত্রা শেষে ট্রেনের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১ মে থেকে।

এবারের ঈদযাত্রায় যাত্রীদের সুবিধার্থে ছয় জোড়া বিশেষ ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। আজ থেকে ট্রেনে আনুষ্ঠানিক ঈদযাত্রা শুরু হয়েছে।

 



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ