বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বিশ্ব নদী দিব উপলক্ষে গলাচিপা “নেঙর” আয়োজনে রামনাবাদ নদী পরিদর্শন তালা প্রতীক নিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মাসুদ আলম খান। দক্ষিণ এশিয়া বিজনেস এ্যাওয়ার্ড পেলেন এস.এম জাকির হোসেন এম ভি আল ওয়ালিদ-৯ লঞ্চে সন্তান প্রসব, পরিবারের জন্য আজীবন ভাড়া ফ্রী গলাচিপার কৃতি সন্তান মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হওয়ায় আনন্দ মিছিল ও বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন। রাজৈরে ভোটঘর সোশ্যাল ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন মুন্সীগঞ্জে পুলিশের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মানিকগঞ্জে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চাঁদমারিতে সংঘাত-রক্তপাত, বেপরোয়া আলামিন বাহিনীর বিরুদ্ধে তিন মামলা জেলা পরিষদ নির্বাচনে কামরুলকে প্রার্থী করতে ইউপি সদস্যদের জোট

গলাচিপায় হতদরিদ্র আশ্রায়ন বাসিদের মাঝেঁ টিসিবি’র পণ্য বিক্রয়

 জেলা প্রতিনিধিঃ মিঠুন পাল, পটুয়াখালী। ‘টিসিবি’র পণ্য দামে সাশ্রয়ী, মানে অনন্য’ এর ব্যানারে পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার ডাকুয়া আশ্রায়নবাসিদের মাঝেঁ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সহযোগীতায় ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ এর ভ্রাম্যমাণ ট্রাকের মাধ্যমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশিষ কুমার এর নির্দেশনায় (টিসিবি’র) ডিলার মেসার্স রাসেল স্টোর এর মাধ্যমে ১’লা নভেম্ব সোমাবার সকাল ১০ টা থেকে বিভিন্ন আশ্রায়নবাসিদের মাঝে স্বল্প মূল্যে চাল, ডাল, তেলে ও চিনি বিক্রয় করা হয়। এতে বর্তমানে নিত্যপণ্যের দাম লাগাম হিন বেড়ে যাওয়ায়, টিসিবি’র পণ্য সরবরাহ হওয়ায়, জনসাধারণ ও নিম্নবিত্তের পরিবারের মাঝেঁ কিছুটা স্বস্তির নিশ্বাস ফেলেছে বলে আশ্রায়ন বাসি লিপি বেগম, কাকলী আক্তার, নূরু প্যাদা, জয়দেব হাওলাদর, নিখিল চন্দ্র শীল, বাবুল মাঝি সহ অনেকেই বলেন, আমরা গরীব মানুষ, বাজারে গেলে টাকার অভাবে সক দরকারি জিনিশ কিনতে পারিনা। অল্প ট্যাহায় দিয়া যা কিনছি এতেই আমাগো একটু উপকার হইছে। তবে এ অল্প জিনিশ দিয়া কিছুদিন চলা যায়, আরও একটু বেশি পাইলে আমাগো মতো গরীবরা একটু বাচঁতে পারতাম। হের পরেও সরকারে কাছে আমরা ধন্যবাদ জানাই। টিসিবি’র ডিলারের স্বত্তাধীকার মোঃ রাসেল হাওলাদর বলেন, বাংলাদেশর বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধিনে কিছুদিন পর পর জনসাধারণ ও নিম্নবিত্ত পরিবারের জন্য খোলাবাজারে ডাল ৫৫, চিনি ৫৫, পেয়াচ ৩০ ও সয়াবিন তেল লিটার প্রতি ১০০ টাকায় বিক্রয় হচ্ছে। যদিও বরাদ্দ পরিমাণ কম হওয়ায় জনসাধারণের প্রয়োজন মতো সরবারহ করতে পারছিনা। বরাদ্দ পরিমাণ বৃদ্ধি করা হলে কিছুটা হলেও প্রয়োজন মিটানো যেতো। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশিষ কুমার বলেন, বর্তমান সরকারে চিন্তা ভাবনায় বাণিজ্য মন্ত্রণলয়ের নমাধ্যমে দেশের সব কয়টি জেলা উপজেলায় নিম্ন ও মধ্যবিত্ত জনসাধারণে জন্য টিসিবি’র স্বল্প মূল্যের নিত্যপণ্যের জিনিশ বিক্রয় করা হচ্ছে। হ্যা, এটা ঠিক যে প্রয়োজন অপেক্ষায় বরাদ্দকৃত জিনিশের পরিমাণ কম। তবে, এবিষয়ে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করার মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ