শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১২:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বিশ্ব নদী দিব উপলক্ষে গলাচিপা “নেঙর” আয়োজনে রামনাবাদ নদী পরিদর্শন তালা প্রতীক নিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মাসুদ আলম খান। দক্ষিণ এশিয়া বিজনেস এ্যাওয়ার্ড পেলেন এস.এম জাকির হোসেন এম ভি আল ওয়ালিদ-৯ লঞ্চে সন্তান প্রসব, পরিবারের জন্য আজীবন ভাড়া ফ্রী গলাচিপার কৃতি সন্তান মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হওয়ায় আনন্দ মিছিল ও বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন। রাজৈরে ভোটঘর সোশ্যাল ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন মুন্সীগঞ্জে পুলিশের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মানিকগঞ্জে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চাঁদমারিতে সংঘাত-রক্তপাত, বেপরোয়া আলামিন বাহিনীর বিরুদ্ধে তিন মামলা জেলা পরিষদ নির্বাচনে কামরুলকে প্রার্থী করতে ইউপি সদস্যদের জোট

ঘরের সৌন্দর্যে ক্যাকটাস

ইট-পাথরের শহরে মানুষ যখন চার দেয়ালে বন্দি, তখন ঘরের ভিতরে একটু প্রকৃতির ছোঁয়া পেতে কার না মন চায়? আর প্রকৃতির অন্যতম উপাদান যদি গাছ হয় তাহলে মন্দ কিসে।

সব ধরনের উদ্ভিদ দীর্ঘদিন ঘরের ভিতরে ভালো না থাকলেও ক্যাকটাস জাতীয় উদ্ভিদ দীর্ঘদিন বেঁচে থাকতে পারে সহজেই। কাঁটাযুক্ত জাতীয় উদ্ভিদ ক্যাকটাস।

শোবার ঘর কিংবা বেড রুমে গাছের উপস্থিতি অনুভব করতে আজকাল অনেকেই এ জাতীয় উদ্ভিদ ঘরের ভিতরে রাখছেন। এতে ঘরের মধ্যে প্রকৃতির পরশ ও সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।  এছাড়া ঘরের মেঝে, সিঁড়ি, বারান্দায় সুন্দরভাবে সাজানো যেতে পারে।

এক সময় ক্যাকটাস জাতীয় উদ্ভিদ বেচাবিক্রি কম হলেও দিন দিন এর চাহিদা বাড়ছে।

রাজধানীর দোয়েল চত্বরের ক্যাকটাস বিক্রেতা মো. হারুন জানান, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ক্যাকটাসসহ অন্যান্য প্রজাতির গাছ কিনতে ক্রেতারা এখানে আসেন। সাপ্তাহিক ছুটির দিনগুলোতে ক্রেতাদের বেশ সমাগম হয়ে থাকে। অন্যসব দিনগুলোতে বিক্রি সন্তোষজনক বলে জানান তিনি।
বিশ্বে প্রায় ২৫০০ এর বেশি প্রজাতির ক্যাকটাস আছে।

আমাদের দেশে টবে লাগানোর উপযোগী কয়েকটি ক্যাকটাস উদ্ভিদগুলো হলো একাইনো, এপিফাইলাম, নিপল, সেরিয়াস, গোল্ডেন ব্যারেল, ওল্ড লেডি, মাদার-ইন-ল-চেয়ার, সেরিয়াস, ফনিমনসা, বানি ইয়ারস, চিনা, সাগুয়ারো, ব্যারেল, ক্যাব ক্যাকটাস ইত্যাদি।

পর্যাপ্ত আলো বাতাস ছাড়াও এ জাতীয় গাছ দীর্ঘদিন বেঁচে থাকতে পারে বলে এ ধরনের গাছ বেছে নিচ্ছেন শৌখিন মানুষজন। বাড়ির সৌন্দর্য বাড়াতে ও ক্যাকটাসের ফুল ফোটানোর জন্য এবং যথাযথ বৃদ্ধির জন্য এ জাতীয় উদ্ভিদের পরিচর্যার প্রয়োজন রয়েছে। তবে কম আদ্রতায় এ জাতীয় গাছ ভালো থাকে।

ক্যাকটাস সাধারণত আলো-বাতাসযুক্ত শুষ্ক আবহাওয়ার মধ্যে সতেজ থাকে। ঘরের মধ্যে ক্যাকটাস রাখলে অবশ্যই আলো-বাতাসযুক্ত স্থানে রাখতে হবে। ক্যাকটাস গাছের গোড়ায় কোনো অবস্থানেই পানি জমিয়ে রাখা যাবে না। সেক্ষেত্রে গাছের গোড়া পচে গাছ মরে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তবে এক থেকে দুই সপ্তাহ পরপর পানি দিতে হবে।

গাছের  যত্ম: গরমকালে সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন এবং শীতকালে এক থেকে দুই দিন অল্প পানি দিতে হবে। পানির পরিমাণ বেশি হলে ক্যাকটাস গাছ পচে যায়। টবের গোড়ায় পানি জমে থাকলে গাছের গোড়া পচে যেতে পারে। তাই লক্ষ্য রাখতে হবে কোনোভাবেই যাতে গোড়ায় পানি জমে না থাকে। বিক্রেতারাও  গাছের যত্নের ব্যাপারে পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

যেখানে পাবেন: ক্যাকটাস প্রজাতির উদ্ভিদ রাজধানীর দোয়েল চত্বরের রাস্তার দুইপাশে, নিউমার্কেট, ঢাকা কলেজের সামনে, ধানমন্ডি ৬ নম্বর সড়কের ফুটপাত, কলাবাগান ও মিন্টু রোড়ে রাস্তার দুই পাশে পাওয়া যায়। এছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন নার্সারিতেও ক্যাকটাস পাওয়া যাবে।

 



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ