বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০১:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বিশ্ব নদী দিব উপলক্ষে গলাচিপা “নেঙর” আয়োজনে রামনাবাদ নদী পরিদর্শন তালা প্রতীক নিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মাসুদ আলম খান। দক্ষিণ এশিয়া বিজনেস এ্যাওয়ার্ড পেলেন এস.এম জাকির হোসেন এম ভি আল ওয়ালিদ-৯ লঞ্চে সন্তান প্রসব, পরিবারের জন্য আজীবন ভাড়া ফ্রী গলাচিপার কৃতি সন্তান মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হওয়ায় আনন্দ মিছিল ও বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন। রাজৈরে ভোটঘর সোশ্যাল ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন মুন্সীগঞ্জে পুলিশের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মানিকগঞ্জে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চাঁদমারিতে সংঘাত-রক্তপাত, বেপরোয়া আলামিন বাহিনীর বিরুদ্ধে তিন মামলা জেলা পরিষদ নির্বাচনে কামরুলকে প্রার্থী করতে ইউপি সদস্যদের জোট

দুইশত বছর যাবত গ্রামের মূল সড়ক থেকে বিচ্ছিন্ন

গৌরনদীতেঅ বশেষে একটি মাটির রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামের শতাধিক পরিবার জন্য। রাস্তা নির্মাণের ফলে সুবিধাভোগী পরিবারগুলোর মাঝে আনন্দের বন্যা বইছে।

ওই গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা নেছার উদ্দিন তালুকদার জানান, হাপানিয়া গ্রামের হাওলাদার বাড়ি (আদম চৌকিদার) নামে পরিচিত শতাধিক পরিবার একটি রাস্তার অভাবে চরম ভোগান্তিতে ছিলো। অতি সম্প্রতি মাহিলাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের প্রশংসনীয় উদ্যোগের কারনে রাস্তাটি নির্মিত হয়েছে।

সুবিধাভোগী দাদন আলী হাওলাদার, জাহাঙ্গীর হাওলাদার সহ একাধিক বাসিন্দারা জানান, প্রায় দুইশথ বছর পূর্বে তাদের পূর্বপুরুষরা গ্রামের বিলের মধ্যে বসতি স্থাপন করে বসবাস শুরু করেন। বর্ষার মৌসুমে তাদের যাতায়তের একমাত্র মাধ্যম ছিলো নৌকা। শুকনো মৌসুমে প্রতিবেশিদের জমির আইল আর বসতঘরের আঙ্গিনার পাশ দিয়ে যাতায়ত করতে হতো। সে সময় পরিবারের সংখ্যা কম থাকলেও বর্তমানে ওই বাড়িতে প্রায় শতাধিক পরিবারের বসবাস। এই শতাধিক পরিবারের যাতায়তের জন্য দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিলো একটি মাটির রাস্তা। তারা আরও জানান, বিগত দিনে সরকার এসেছে সরকার পরিবর্তন হয়েছে কিন্তু কেউই রাস্তা নির্মাণ করে দেয়নি। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর মাহিলাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলুকে রাস্তাটি নির্মাণ করে দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়। এরপরই তিনি (ইউপি চেয়ারম্যান) রাস্তা নির্মাণ করে আমাদের স্বপ্নটি পূরন করে দিয়েছেন।

ওই গ্রামের ইউপি সদস্য মোঃ সোলায়মান মৃধা জানান, রাস্তার অভাবে চরম দূর্দশার মধ্যে ছিলো তার গ্রামের শতাধিক পরিবার। রাস্তাটি নির্মাণ ব্যয়বহুল হওয়ায় এতোদিন কেউই রাস্তাটি নির্মাণে আগ্রহ দেখায়নি। ইউপি চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলুথর ঐকান্তিক চেষ্টায় রাস্তাটি নির্মাণ করা হয়েছে। রাস্তাটি নির্মানের জন্য গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে ইউপি চেয়ারম্যানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ইউপি সদস্য সোলায়মান।

এ ব্যাপারে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত মাহিলাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধরণ সম্পাদক সৈকত গুহ পিকলু জানান, দুইশত বছর যাবত গ্রামের মূল সড়ক থেকে বিচ্ছিন্ন ছিলো পরিবারগুলো। তাই পরিবারগুলোকে আধুনিক যাতায়ত সুবিধা দেয়ার লক্ষে দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নের রূপকার মন্ত্রী আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপির অনুপ্রেরণায় কর্মসংস্থান কর্মসূচী প্রকল্প, স্থানীয় যুবকদের স্বেচ্ছাশ্রম ও গ্রামবাসীর আন্তরিক সহযোগিতায় এক কিলোমিটার মাটির রাস্তাটি নির্মাণ করা হয়।

 



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ