শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বিশ্ব নদী দিব উপলক্ষে গলাচিপা “নেঙর” আয়োজনে রামনাবাদ নদী পরিদর্শন তালা প্রতীক নিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মাসুদ আলম খান। দক্ষিণ এশিয়া বিজনেস এ্যাওয়ার্ড পেলেন এস.এম জাকির হোসেন এম ভি আল ওয়ালিদ-৯ লঞ্চে সন্তান প্রসব, পরিবারের জন্য আজীবন ভাড়া ফ্রী গলাচিপার কৃতি সন্তান মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হওয়ায় আনন্দ মিছিল ও বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন। রাজৈরে ভোটঘর সোশ্যাল ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন মুন্সীগঞ্জে পুলিশের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মানিকগঞ্জে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চাঁদমারিতে সংঘাত-রক্তপাত, বেপরোয়া আলামিন বাহিনীর বিরুদ্ধে তিন মামলা জেলা পরিষদ নির্বাচনে কামরুলকে প্রার্থী করতে ইউপি সদস্যদের জোট

নিম্নচাপটি যে কোনো সময় রূপ নেবে ঘূর্ণিঝড়ে

আন্দামান সাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি আজ দিনের যে কোনো সময় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। এটি শনিবার সকালে দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ আন্দামান সাগর এলাকায় সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়। বিকালে তা নিম্নচাপে পরিণত হয়। এটি আজ পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরের কাছে পৌঁছে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশের সব সমুদ্রবন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। দেশের ১৯ জেলার নদীবন্দরকেও একই ধরনের সতর্ক সংকেত দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়াবিদরা জানান, নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হলে এর নাম হবে ‘আসানি’। এটি ওড়িশা ও অন্ধ্রপ্রদেশের উপকূলে বৃষ্টি ঝরিয়ে সাগরেই বিলীন হয়ে যেতে পারে। তবে এখনই চূড়ান্ত কিছু বলার সময় আসেনি বলে মনে করেন তারা।

বাংলাদেশ ও ভারতের আবহাওয়া অফিসের পৃথক বুলেটিনে বলা হয়, এখন পর্যন্ত এটির মুখ অন্ধ্রপ্রদেশের দিকে আছে। এভাবে এগোলে তা বিশাখাপত্তম উপকূল অতিক্রম করতে পারে। কিন্তু নিম্নচাপ বা ঘূর্ণিঝড় সব সময় ঘড়ির কাঁটার উলটো দিকের হিসাবে ঘোরে। এ কারণে ঘূর্ণিঝড় ভারতের আরেক রাজ্য ওড়িশার দিকে ঘুরে যেতে পারে। আর এটি ঘটতে পারে ১০ মে’র দিকে। তখন এটি উপকূল ধরে ভূবনেশ্বরের দিকে এগোতে পারে। এখন পর্যন্ত এটি পশ্চিমবঙ্গ বা বাংলাদেশের ওপর আঘাত হানার আশঙ্কা নেই। তবে এর প্রভাবে আগামী ১১ মে থেকে ভারত ও বাংলাদেশে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। ১৩ মে পর্যন্ত বজ সহ মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। ঘূর্ণিঝড়ের ডানদিকের বাতাসের প্রভাব বেশি থাকে। এ কারণে বাংলাদেশের সুন্দরবন পর্যন্ত বাতাসের ছোঁয়া লাগতে পারে।

কয়েকদিন ধরে বাংলাদেশের আবহাওয়া অনেকটাই সহনীয় পর্যায়ে আছে। শুক্রবারের মতো শনিবারও দুপুরের দিকে রাজধানীতে বৃষ্টি হয়েছে। বিএমডির এক বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার জন্য ৬ ঘণ্টার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এরপরই বৃষ্টি হয়। পূর্বাভাসে বলা হয়-দুপুর ১টার পর থেকে পরের ৬ ঘণ্টা ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার আকাশ আংশিক ও অস্থায়ীভাবে মেঘলা থাকতে পারে। এ সময়ে উত্তর বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ বৃষ্টি হতে পারে। আরেক বিজ্ঞপ্তিতে রাত ১টা পর্যন্ত ১৯ জেলার নদীবন্দরে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত জারি করে বলা হয়-এ সময় পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ সহ বৃষ্টি হতে পারে। জেলাগুলো হলো-রাজশাহী, রংপুর, দিনাজপুর, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কৃষ্টিয়া, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, কক্সবাজার, চট্টগ্রাম ও সিলেট অঞ্চল।

আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম জানান, নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার। যা দমকা বা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর উত্তাল রয়েছে। এ অবস্থায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ১ নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরা নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

 



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ