রবিবার, ১২ জুন ২০২২, ০৬:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
কোনোদিন কারও কাছে মাথানত করিনি:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভোলা চরফ্যাশনে শিশু ইসানকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগ আদালতের অনুমতি নিয়ে বিদেশ যেতে পারবেন খালেদা জিয়া:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চীফ হুইপের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম উদ্বোধন ও নদী ভাঙ্গন কবলিত পরিবারের মাঝে চেক বিতরণ। উলানিয়া বন্দরে ইজারাদারের বিরুদ্ধে জোর জলুমের অভিযোগ, ব্যাবসায়ীরা হুমকির পথে ভোলা চরফ্যাশনে শশীভুশন থানাধীন বিশ্ব নবীকে কে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ গলাচিপায় এ কেমন শত্রুতা, গৃহপালিত প্রাণী গরু কুপিয়ে জখম ! বরিশালে লাভ ফর ফ্রেন্ডস এর উদ্দ্যাগে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত ডিবিসি নিউজের সংবাদকর্মীআব্দুল বারীকে নির্মমভাবে হত্যার প্রতিবাদে সিরাজগঞ্জে মানববন্ধন

পটুয়াখালীর গলাচিপায় মৌসুমী এক মাসের ফল লিচু বিক্রির সয়লাব !

 

মু. জিল্লুর রহমান জুয়েল, পটুয়াখালীঃ

বছরে মে থেকে জুন সময়ে মধ্যে দেশের বিভিন্ন হাঠ-বাজারে মৌসুমী এক মাসের রসালো মিষ্টি জাতে বাহারি লিচু ফল বিক্রিতে সয়লাব।

বাংলাদেশের সেরা পরিচিত লিচুর জাত গুলোর মধ্যে রয়েছে- দেশি লিচু, চায়না ৩, বোম্বাই, বারি লিচু-১, বারি লিচু- ২, বারি লিচু ৩ মোজাফ্ফরপুরী, মঙ্গলবারী, বেদানা, এলাচ এদেশে এটাই সর্বোত্কৃষ্ট জাত ৷ এসব জাতের লিচু কিন্তু প্রতিবছর হয় না যে গাছে লিচু একবার হয় দ্বিতীয় বছর সেই গাছে আর লিচুর ফুল ফল আসে না এজন্য লিচু চাষে তেমন ফলন হয় না। ইংরেজিতে লিচু ( Litchi) বলে বা চিনে থাকেন। এছাড়া আমদের বাংলাদেশে আমরা সব থেকে বেশি যেই লিচু চিনি সেটা হলো এক নামে দেশি লিচু আর বম্বাই লিচু। দেশি লিচু একটু টক হয় আঁশ অনেক কম থাকে বিচি একটু বড় হয়ে থাকে আর বোম্বাই লিচু সাইজে বেশে বড় হয় আশ থাকে অনেক বেশি বিচি অনেকটা ছোট থাকে ফলে রস থাকে পরিপূর্ণ। যার চাহিদা ভোক্তা ও বাজারে অনেক বেশি। গলাচিপা উপজেলার সদর বাজার গুলোতে লিচু বিক্রি করে দিনে তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকা আয় করছেন স্বল্প আয়ের বিভিন্ন পেশার মৌসুমী ফল বিক্রেতারা। একটি নির্ভরযোগ্য তথ্যে জানা যায় উপজেলার পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতারা গড়ে প্রতিদিন প্রায় দশ লাখ টাকার লিচু বিক্রি করছেন।

বিভিন্ন তথ্য অনুুসন্ধান এবং বিশেষজ্ঞতের মতে জানা যায় লিচু থেকে প্রচুর পরিমাণে পানি এবং পটাসিয়াম পাওয়া যায় । কিডনিতে জমা হওয়া টক্সিন বের করে দিতে সাহায্য করে এগুলো। লিচু ইউরিক অ্যাসিডের ঘনত্বও কমায় যা কিডনির ক্ষতির ঝুঁকি হ্রাস করে। এছাড়া
লিচুতে রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, আয়রন, ম্যাংগানিজ এবং কপার। এসব উপাদান হাড়ের ক্যালসিয়াম শোষণে সাহায্য করে। ফলে নিয়মিত লিচু খেলে হাড়ের ভঙ্গুরতা কমে এবং অস্টিওপোরোসিস ও ফ্র্যাকচারের সম্ভাবনা হ্রাস পায়। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ লিচু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাছাড়া লিচুর অলিগোনল ভাইরাসকে বাড়তে দেয় না। তাই গ্রীষ্মের এই সময়টায় নিয়মিত লিচু খেলে সাধারণ সর্দি এবং ফ্লুতে অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা কমে। ভিটামিন সি এর পাশাপাশি ভিটামিন কে এবং ই পাওয়া যায় লিচু থেকে। এতে কম মাত্রায় রাইবোফ্লাভিন এবং নিয়াসিন রয়েছে। গরমে নিয়মিত লিচু খেলে দৈনিক ভিটামিন বি৬-এর চাহিদার ১০ শতাংশ পাওয়া যায়। এটা লোহিত রক্তকণিকা তৈরিতে সাহায্য করে এবং প্রদাহজনিত রোগ থেকে রক্ষা করে। লিচুতে ক্যালোরি খুব কম। তাই ওজন বাড়ার আশঙ্কা নেই। হার্টের জন্য খুবই উপকারী লিচু। এতে রয়েছে অলিগোনল, যা নাইট্রিক অক্সাইড তৈরি করতে সাহায্য করে। এই নাইট্রিক অক্সাইড আবার রক্ত চলাচলে সাহায্য করে। এতে ফ্ল্যাভোনয়েড রয়েছে যা ভাসকুলার ফাংশন উন্নত করে এবং হৃদরোগ প্রতিরোধ করে।

কৃষি-গভেষনার একটি তথ্যে জানা যায়, লিচু চারা লাগাতে ৮ মিটার × ৮ মিটার কিংবা ১০ মিটার × ১০ মিটার ব্যবধানে চারা বপন করতে হবে। গর্তের আকার: ১ মিটার × ১ মিটার × ১ মিটার হওয়া প্রয়োজন। চারা রোপণের ১০–১৫ দিন আগে গর্ত তৈরি করতে হবে এবং সার ও মাটি মিশিয়ে গর্তটি ভরাট করতে হবে। চারা বপণের সময় সাবধানে চারাটি গোড়ার মাটিরবল সহ গর্তের মাঝামাঝি সোজাভাবে লাগাতে হয়।

গলাচিপা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আরজু আক্তার জানান, বাজারে মৌসুম অনুযায়ী অত্যান্ত পুষ্টিকর ফল লিচু বাজারে এসেছে। যদিও আমাদের এ অঞ্চলে আবহাওয়াগত পরিবেশ ভালো থাকলেও অতি লাভজনক লিচু বাগান করতে তেমন উৎসাহী কৃষক পাওয়া যায়নি। তবে যদি কেউ এগিয়ে আসেন আমরা নিশ্চয় তাকে সার্বিক ভাবে সহযোগীতা করা হবে।



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ