শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৫:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বিশ্ব নদী দিব উপলক্ষে গলাচিপা “নেঙর” আয়োজনে রামনাবাদ নদী পরিদর্শন তালা প্রতীক নিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মাসুদ আলম খান। দক্ষিণ এশিয়া বিজনেস এ্যাওয়ার্ড পেলেন এস.এম জাকির হোসেন এম ভি আল ওয়ালিদ-৯ লঞ্চে সন্তান প্রসব, পরিবারের জন্য আজীবন ভাড়া ফ্রী গলাচিপার কৃতি সন্তান মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হওয়ায় আনন্দ মিছিল ও বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন। রাজৈরে ভোটঘর সোশ্যাল ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন মুন্সীগঞ্জে পুলিশের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মানিকগঞ্জে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চাঁদমারিতে সংঘাত-রক্তপাত, বেপরোয়া আলামিন বাহিনীর বিরুদ্ধে তিন মামলা জেলা পরিষদ নির্বাচনে কামরুলকে প্রার্থী করতে ইউপি সদস্যদের জোট

“বরিশালে একই ছাতা ও উদ্দেশ্য নিয়ে করা কাজগুলোকে উচ্চে পৌঁছাতে বিদায়ী বিএমপি কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান অনন্য ভূমিকা রেখেছেন”। ________বিভাগীয় কমিশনার বরিশাল।

 

১০ মে ২০২২ সন্ধ্যায় বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার (অতিরিক্ত আইজিপি) জনাব মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম বার মহোদয়ের পদোন্নতিসূত্রে বদলিজনিত বিদায় উপলক্ষ্যে ধানসিঁড়ি সম্মেলন কক্ষ সার্কিট হাউস বরিশালে বিভাগীয় প্রশাসন ও জেলা প্রশাসন বরিশাল কর্তৃক এক বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বিভাগীয় কমিশনার অতিরিক্ত সচিব জনাব মোঃ আমিন উল আহসান বলেন,সুদর্শন এই বিদায়ী অতিথি মানুষ হিসেবে অবশ্যই একজন ভালো মানুষ যিনি “বরিশালে একই ছাতা ও উদ্দেশ্য নিয়ে করা কাজগুলোকে উচ্চে পৌঁছাতে তাঁর ব্যক্তিত্ব, আচরণ, সততা এবং নিষ্ঠা দিয়ে এমন ভূমিকা রেখেছেন যে কাজ করতে গিয়ে মনে হয়েছে একই কাজ ও কর্মপরিবেশ । পরবর্তী কর্মস্থলেও এই ধারা অব্যাহত রেখে তার ক্যারিয়ার আরও সমুন্নত রাখবেন মর্মে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

রেঞ্জ ডিআইজি বরিশাল জনাব মোঃ আক্তারুজ্জামান, জনসম্পৃক্ততায় অপরাধ দানাবাঁধার আগেই দমন ও নগর নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে রাখতে বিদায়ী অতিথির বহুমাত্রিক ব্যবস্থাপনায় ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সদরদপ্তর জনাব প্রলয় চিসিম বিদায়ী অতিথির কর্মকালীন বর্ণাঢ্য কর্মকৌশল গুণাবলী তুলে ধরেন।

জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ জসিম উদ্দিন হায়দার বিদায়ী অতিথি মহোদয়কে বলেন, তিনি একজন জনবান্ধব আইডল পুলিশ কর্মকর্তা যার সহযোগিতা ও সহমর্মিতা অতুলনীয়।

বিদায়ী অতিথি আয়োজকবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তাঁর বক্তব্যে বলেন, জটিল গোলক ধাঁধাঁয় আবদ্ধ জীবন উপভোগ্য হয় না, জীবন যেন উপভোগ্য হয় সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে চেষ্টা করি। সরকারি কর্মচারীদের “ইগো ” নিয়ে কাজ করলে সেখানে ব্যর্থতা চলে আসে এবং সমস্ত জীবনের খর্বতা আনয়ন করে। বরিশালে ইগো বিহীন মাঠ প্রশাসন পেয়ে একসাথে কাজ করতে পেরেছি যা সত্যি আনন্দের।

তিনি আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে যাঁদের ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত এই সোনার বাংলা ; তাঁদের উদ্দেশ্য ছিলো সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়া। এই সমৃদ্ধির চাবিকাঠি আমাদের হাতে রয়েছে। স্ব স্ব অবস্থান থেকে কাজ করে এই দেশকে অনেক দূরে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব মর্মে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সভায় বক্তব্যে বদলীজনিত বিদায়ী অতিথির সাফল্যমন্ডিত কর্মের কথা উঠে আসে এবং একজন দক্ষ, গুণী ও মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন চৌকস কর্মকর্তা হিসেবে আলোচিত হন ; পরবর্তী কর্মস্থলে উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করে ফুলেল শুভেচ্ছা , সম্মাননা সূচক ক্রেষ্ট ও উপহার সামগ্রী তুলে দেয়া হয়।



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ