বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বিশ্ব নদী দিব উপলক্ষে গলাচিপা “নেঙর” আয়োজনে রামনাবাদ নদী পরিদর্শন তালা প্রতীক নিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মাসুদ আলম খান। দক্ষিণ এশিয়া বিজনেস এ্যাওয়ার্ড পেলেন এস.এম জাকির হোসেন এম ভি আল ওয়ালিদ-৯ লঞ্চে সন্তান প্রসব, পরিবারের জন্য আজীবন ভাড়া ফ্রী গলাচিপার কৃতি সন্তান মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হওয়ায় আনন্দ মিছিল ও বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন। রাজৈরে ভোটঘর সোশ্যাল ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন মুন্সীগঞ্জে পুলিশের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মানিকগঞ্জে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চাঁদমারিতে সংঘাত-রক্তপাত, বেপরোয়া আলামিন বাহিনীর বিরুদ্ধে তিন মামলা জেলা পরিষদ নির্বাচনে কামরুলকে প্রার্থী করতে ইউপি সদস্যদের জোট

মাদারীপুরে নতুন সরকারী ভবনের গ্লাস ভেঙ্গে পড়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

মাদারীপুর প্রতিনিধি: মাদারীপুরে নতুন সরকারি সমন্বিত অফিস ভবনের একটি ইউনিটের ২৪ টি জানালার কাচ ‘দমকা হাওয়ায়’ ভেঙে পড়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। কাজের মান নি¤œ মানের হওয়ার কারনে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানায় সচেতন মহল। তবে কারো গাফিলতি আছে কি না তা খতিয়ে দেখতে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন। ‘কারও কাজে গাফিলতি আছে কি না তা খতিয়ে দেখার জন্য চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। সোমবার তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা প্রশাসক রহিমা খাতুন।
জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে মাদারীপুরে সরকারি সমন্বিত অফিসের (১০ তলা ভবনের) ষষ্ঠ তলার পূর্বপাশের ব্লকের ৬০৭ থেকে ৬০৯ নম্বর রুমে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের অফিস তিনটি রুমের জানালা দমকা হাওয়ায় ভেঙে পড়ে। এ সময় এই কক্ষগুলোতে থাকা মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের কম্পিউটার, ফটোকপি মেশিনসহ বেশকিছু ইলেকট্রনিকস মালামালের ক্ষতি হয়। এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন। সোমবার বেলা ১১টার দিকে তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা প্রশাসক রহিমা খাতুন। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মাদারীপুরের উপ-পরিচালক আজাহারুল ইসলামকে প্রধান করে আরও তিন সদস্য নিয়ে তদন্ত কমিটিটি গঠন করা হয়।‘অন্য সদস্যরা হলেন এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী বাবুল আখতার, গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম ও মাদারীপুর পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মদ আবুল কালাম। তদন্ত আগামী পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেবেন। তারপর আইনি সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’
মাদারীপুর শহরের শকুনী মৌজায় ১ একর জমির উপরে ৬৯ কোটি ৭০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয় অত্যাধুনিক সরকারি সমন্বিত অফিস ভবন। ভবনটিতে চলবে ৪০টি সরকারি অফিসের কার্যক্রম। এই ১০ তলা ভবনটিতে রয়েছে ৪ টি লিফট, মাল্টিপারপাস হলরুম, একসঙ্গে ৫৫টি গাড়ি পার্কিংয়ের আলাদা স্থান, আলাদা বিদ্যুৎ সংযোগ ও প্রতিবন্ধীদের জন্য যাতায়াতের আলাদা ব্যবস্থাসহ আধুনিক সব সুবিধা। যাতে জনসাধারণকে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে তাদের দাপ্তরিক কাজ না করে একটি ভবনে বেশিরভাগ দপ্তর খুজে পায় । সে উদ্দেশ্যে বাংলাদেশের প্রথম এ ভবনের কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়। ২০১৬ সালে ভবনটির নির্মাণকাজ শুরু করে গণপূর্ত বিভাগ। গত ৩ আগস্ট ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের জেলাভিত্তিক প্রথম সরকারি সমন্বিত অফিসটির উদ্বোধন করেন। কিছু কাজ অসমাপ্ত থাকায় নভেম্বরে এর নির্মাণকাজ শেষ দেখায় গণপূর্ত বিভাগ। দুই মাস পার হতে না হতেই সামান্য দমকা হাওয়ায় ভেঙে পড়ে তিনটি রুমের জানালার থাই গ্লাস।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভবনে থাকা একটি দফতরের এক কর্মকর্তা বলেন, সামান্য বাতাসেই জানালা ভেঙে গেছে। ভবিষ্যতে আরও বেশি ঝড় হলে আমাদের জন্য কি হবে সেটাই এখন চিন্তার বিষয়। এছাড়া জানালার গ্রিলগুলোও অনেক হালকা। মান ভাল হওয়া উচিৎ ছিল।

হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের মাদারীপুর জেলা সহকারী পরিচালক মুয়িত উদ্দিন মোল্লা বলেন, ‘ভবনের ষষ্ঠ তলার পূর্বপাশের তিনটি রুমের জানালাগুলো দমকা হাওয়ায় ভেঙে পড়েছে। এ ঘটনায় কক্ষগুলোতে থাকা মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের মাদারীপুর জেলা শাখার কার্যালয়ের কম্পিউটার, ফটোকপির মেশিনসহ বেশ কিছু ইলেকট্রনিক্স মালামালের ক্ষতি হয়। বিষয়টি জেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।
মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, সরকারি সমন্বিত দশতলা ভবনের কয়েকটি রুমের জানালার গ্লাস ঝড়ের কারণে ভেঙে গিয়েছে। এটা সরেজমিন দেখেছি এবং এ ব্যাপারে একটা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এমন ঘটনা যেন সামনে না ঘটে সেটার ব্যাপারেও আমরা পদক্ষেপ নেব। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের পরে আইনী সিদ্ধান্ত নিব।



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ