রবিবার, ১২ জুন ২০২২, ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
আদালতের অনুমতি নিয়ে বিদেশ যেতে পারবেন খালেদা জিয়া:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চীফ হুইপের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম উদ্বোধন ও নদী ভাঙ্গন কবলিত পরিবারের মাঝে চেক বিতরণ। উলানিয়া বন্দরে ইজারাদারের বিরুদ্ধে জোর জলুমের অভিযোগ, ব্যাবসায়ীরা হুমকির পথে ভোলা চরফ্যাশনে শশীভুশন থানাধীন বিশ্ব নবীকে কে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ গলাচিপায় এ কেমন শত্রুতা, গৃহপালিত প্রাণী গরু কুপিয়ে জখম ! বরিশালে লাভ ফর ফ্রেন্ডস এর উদ্দ্যাগে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত ডিবিসি নিউজের সংবাদকর্মীআব্দুল বারীকে নির্মমভাবে হত্যার প্রতিবাদে সিরাজগঞ্জে মানববন্ধন করোনা শনাক্ত দেশে বাড়ছে দশমিনা চরবোরহানে ভোটারদের বাড়ি ঘরে গভীর রাতে হামলার অভিযোগ, নেই কোন প্রতিকার !

সাম্প্রদায়িকতার প্রতিবাদে নিউইয়র্কে মানববন্ধন

খুলনার রূপসা উপজেলার শিয়ালী গ্রামে শতাধিক দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ৪টি মন্দির এবং ৬টি দোকান ও একটি বাড়িতে ভাঙচুরের ঘটনার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে যৌথভাবে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে কয়েকটি সামাজিক সংগঠন।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১০ আগষ্ট) সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসের ডাইভার সিটি প্লাজায় অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে অংশ নেন যুক্তরাষ্ট্রস্থ মহিলা পরিষদ, উদীচী ও প্রোগ্রেসিভ ফোরাম।
শনিবার (৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় শতাধিক যুবক রামদা, চাপাতি, কুড়াল নিয়ে খুলনার রূপসা উপজেলার শিয়ালী গ্রামে হামলা চালায়। তারা অতর্কিতভাবে বাজারের বিভিন্ন দোকান ভাঙচুর করে। এ সময় শিবপদ ধরের বাড়িতে হামলা চালিয়ে লুটপাট করা হয়। তারা সেখানকার কয়েকটি মন্দিরেও ভাঙচুর করে। কয়েকজন বাধা দিতে এলে তাদের পিটিয়ে আহত করা হয়। এলাকাবাসী প্রতিরোধ তৈরি করার আগেই হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

যৌথভাবে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে যুক্তরাষ্ট্রস্থ মহিলা পরিষদ, উদীচী ও প্রোগ্রেসিভ ফোরাম। বক্তব্য দেন উদীচীর সহ-সভাপতি সুব্রত বিশ্বাস, প্রোগ্রেসিভ ফোরামের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক খোরশেদুল ইসলাম ও আলীম উদ্দিন, মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুলেখা পাল, ওপেন আইস‘র মুজাহিদ আনসারী ও সৈয়দ জাকির আহমেদ রনি, বিশিষ্ট সমাজসেবক দীনেশ মজুমদার ও সংগীত শিল্পী সবিতা দাশ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাবেক ছাত্র নেতা জাকির হোসেন বাচ্চু।

বক্তরা সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন বন্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দ্রুত হস্তক্ষেপ কমনা করেন। তারা বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তির বছরে মুক্তিযুদ্ধের সরকার ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় বারবার হিন্দু ও অন্যান্য সংখ্যালঘুদের ঘরবাড়ি, ব্যবসা-বাণিজ্য, দোকান-পাট, মন্দির ও উপাসনালয়ে হামলা ও লুটপাটের পরও একে স্থায়ীভাবে প্রতিরোধে সরকারের দীর্ঘমেয়াদী তেমন কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করছে না, এটা খুবই দুঃখজনক। যেসব সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী বারবার এসবে ইন্ধন দিচ্ছে, তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান বক্তারা।

একইসঙ্গে বক্তারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে সংখ্যালঘুদের সমস্যা সমাধানে সরকারকে উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানান।



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ