শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বিশ্ব নদী দিব উপলক্ষে গলাচিপা “নেঙর” আয়োজনে রামনাবাদ নদী পরিদর্শন তালা প্রতীক নিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মাসুদ আলম খান। দক্ষিণ এশিয়া বিজনেস এ্যাওয়ার্ড পেলেন এস.এম জাকির হোসেন এম ভি আল ওয়ালিদ-৯ লঞ্চে সন্তান প্রসব, পরিবারের জন্য আজীবন ভাড়া ফ্রী গলাচিপার কৃতি সন্তান মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হওয়ায় আনন্দ মিছিল ও বিভিন্ন সংগঠনের অভিনন্দন। রাজৈরে ভোটঘর সোশ্যাল ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং উদ্বোধন মুন্সীগঞ্জে পুলিশের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মানিকগঞ্জে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চাঁদমারিতে সংঘাত-রক্তপাত, বেপরোয়া আলামিন বাহিনীর বিরুদ্ধে তিন মামলা জেলা পরিষদ নির্বাচনে কামরুলকে প্রার্থী করতে ইউপি সদস্যদের জোট

১৮ দিনের মাথায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফের ফেরির ধাক্কা

ফের পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দিয়েছে রো রো ফেরি। সোমবার সন্ধ্যায় মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাট থেকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাটে যাওয়ার সময় বীরশ্রেষ্ঠ  জাহাঙ্গীর নামে রো রো ফেরি পদ্মা সেতুর ১০ নম্বর পিলারে ধাক্কা দেয়। ১৮ দিনের মধ্যে পদ্মা সেতুর পিলারে দুই বার ধাক্কা দেওয়ার ঘটনা ঘটল।

বিআইডব্লিউটিসির মেরিন অফিসার আহাম্মদ আলী বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধাক্কা খাওয়ার পর ফেরিতে থাকা একটি পণ্যবাহী ট্রাক অপর দুটি প্রাইভেট কারের ওপর পড়ে যায়। এতে প্রাইভেটকার ২টি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। ধাক্কা খেয়ে ফেরির তলায় ফাটল দেখা দিয়েছে। ফেরিটি এখন লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাটের ২ নম্বর ফেরি ঘাটে রয়েছে।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মুল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বলেন, সেতুর ১০ নাম্বার পিলারে ফেরির ধাক্কা লাগার খবর শুনেছি। আমাদের লোক এর মধ্যে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধাক্কা লাগা পিলারের পর্যবেক্ষণ করেছে। খবর পেয়েছি আগের ধাক্কা লেগে ১৭ নম্বর পিলারের পাইল ক্যাপে যতটুকু কংক্রিট উঠে গিয়ে ছিল এবার তার থেকে কম ক্ষতি হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এসব ব্যাপারে আইনানুগ বা অন্য কোনো ব্যবস্থা নেয়ার এখনো কোন নির্দেশনা পাইনি।

উল্লেখ্য, এর আগে ২৩ জুলাই নির্মাণাধীন পদ্মা বহুমুখী সেতুর ১৭ নম্বর পিলারের সঙ্গে শাহজালাল নামের রো রো ফেরির ধাক্কা লাগে। এতে ফেরিটির অন্তত ২০ জন যাত্রী আহত হন। ঘটনার পর পরই ফেরির ইনচার্জ ইনল্যান্ড মাস্টার অফিসার আব্দুর রহমানকে বরখাস্ত করে বিআইডব্লিউটিসি। ঘটনার তদন্তে ওই দিনই ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিআইডব্লিউটিসি।

তাদের দাখিল করা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিলারের সঙ্গে সংঘর্ষের পেছনে রো রো ফেরিটির ইনচার্জ মাস্টার আব্দুর রহমান ও সুকানি সাইফুল ইসলামের দায়িত্তহীনতা রয়েছে।

 



আমাদের ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ