ঢাকা ০৮:২৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে লড়তে চান দুঃসময়ের কান্ডারী ত্যাগি নেতা ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।।

নজরুল ইসলাম আলীম//
  • আপডেট সময় : ০৯:০৪:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৩১ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে লড়তে চান দুঃসময়ের কান্ডারী ত্যাগি নেতা ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।।

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৬ আসন(উন্নয়ন বঞ্চিত বাকেরগঞ্জ) থেকে বারবার মনোনয়ন বঞ্চিত ও দলের দুঃসময়ের ত্যাগী নেতাবাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের ভাইস চেয়ারম্যান,আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ কমিটির সম্পাদক, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি,বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট)ছাএলীগের সাবেক সভাপতি, ৯০’এর দশকের স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের সময় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট)ছাএলীগের সাবেক মেধাবী ছাত্র বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে থেকে নৌকা প্রতিক নিয়ে লড়তে চান ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু। তিনি তার নির্বাচনী এলাকা বাকেরগঞ্জ বাসীর দোস্ত অসহায় ও গরীব দুঃখীদের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে তার প্রদত্ত ঈদ উপহার পবিত্র ঈদুল ঈদুল ফিতর এবং ঈদুল আযহা উপলক্ষে বিতরণ করেছেন।তাছাড়া তিনি তার নির্বাচনী এলাকায় কর্মীবান্ধব হিসেবে বেশ পরিচিতি লাভ করেছেন। তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একান্ত বিশ্বাস্ত ও আস্থাভাজন হওয়ার কারণে ইতিপূর্বে তিনি একাধিকবার দলীয় মনোনয়ন পেলেও তৎকালীন জোটের স্বার্থে তার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধ্য হোন। তাছাড়া ও তিনি ২০০১ সালে জামাত-বিএনপি জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর অনেক সুবিধাভোগী নেতারা দেশ ত্যাগ করলেও তিনি তিনি তার জন্মভূমিতে থেকেই ২০০১-২০০৬ সালের তৎকালীন জামাত-বিএনপি’র স্টিম রোলারের নির্যাতন সহ্য করে বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে থাকিয়া সকল প্রকার আন্দোলনের সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিলেন। তিনি এই প্রতিবেদককে প্রথমেই জানিয়ে বলেন,আমিশ্রদ্ধার সাথে স্মরন করে, ১৯৫২ সাল থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত ভাষা ও দেশের জন্য যাহারা শাহাদাত বরন করেছেন তাহাদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।আমি আরো শ্রদ্ধার সাথে স্মরন করব হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী বাংলার রাখাল রাজা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানকে এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট পাকিস্তানী দোষরদের বুলেটের আঘাতে তাহার পরিবারের শহীদের প্রতি গভীর সমবেদনা ও শোক প্রকাশ করেন এবং বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন। তিনি আরো বলেন, আমি গর্বের সাথে স্মরন করছি ১৯৭১ সালের পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী থেকে ছিনিয়ে আনা লাল সবুজের বাংলাদেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের, সেই সাথে স্মরন করছি বাকেরগঞ্জ উপজেলাধীন সকল নেতৃবৃন্দসহ যাহারা পরোলোকগমন করেছেন তাহাদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত বিনম্র শ্রদ্ধার সাথে কামনা করি।সম্ভাব্য এই আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু বলেন, সংসদীয় আসন উন্নয়ন বঞ্চিত বাকেরগঞ্জ -০৬ থেকে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ স্বাধীনতার স্বপক্ষের রাজণৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের বর্তমান সভানেত্রী, গণতন্ত্রের মানসকন্যা,ডিজিটাল বাংলার স্থপতি, উন্নয়নের ধারক, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী, জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে আগামী জাতিয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ইচ্ছা পোষন করছি।তিনি আক্ষেপ করে আরো বলেন, আগা বাকের খানের সেই স্মৃতি বিজারিত বার আউলিয়াদের পুনভূমি সাবেক বাকেরগঞ্জ জেলার ১৪ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা গঠিত এই উপজেলায় বিন্দুমাত্র উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। বিজ্ঞ এই প্রকৌশলী বলেন, আমি আমার নির্বাচনী উদ্দেশ্য, পরিকল্পনা জন কল্যানে আমার সমাজসেবা মূলক চিন্তা ভাবনা আপনাদের মাধ্যমে প্রিয় বাকেরগঞ্জ বাসীস ও পৌরবাসীকে জানাতে চাই আমার নির্বাচনী উদ্দেশ্য বাকেরগঞ্জ উপজেলার জনগনের নানাবিধ সমস্যা চিহ্নিতকরন এবং তা সমাধান করা। তাছাড়া বাকেরগঞ্জ উপজেলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে হিসেবে গড়ে তোলা সহ সর্বপরি উপজেলা বাসীর সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে পথচলা। এছাড়া সততা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও কর্ম এই চার আদর্শের ভিত্তিতে আপনাদের সাথে কাজ করার উদ্দেশ্য নিয়েই আপনাদের সাথে আশা ও নির্বাচনী ঘোষনা দেওয়া।
তিনি আরো বলেন, আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও মানসিক প্রধানমন্ত্রী আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিলে আমি আপনাদের আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও কৃষকলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে বসে আপনাদেরকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নিব।আশা করি আগামী দিন গুলিতে আমাকে সহযোগীতা করবেন।তিনি বলেন, হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি সকল নেতৃবৃন্দ জনপ্রতিনিধিগণ এবং সর্বস্তরের জনগণ গত জেলা পরিষদ নির্বাচনে আমার ওয়াদা ছিল আপনাদের জন্য কাজ করা। যে ভাবে বিগত নির্বাচনে আপনারা আমাকে সার্বিক সহযোগীতা করেছেন, সে জন্য আমি ও আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।প্রিয়, বাকেরগঞ্জ উপজেলা বাসি আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন, আগামী দিনগুলিতে আমি যেন আপনাদের সাথে কাজ করতে পারি, আমি কাজ করতে চাই, জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে আমার দেশের জন্য, আপনাদের জন্য । জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, জয় হোক মেহনতি জনতার।বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত। এখানে সকল ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম ও আচার অনুষ্ঠানাদি পালন করে আসছে। এটি বাংলাদেশের সম্প্রীতির এক অনুপম ঐতিহ্য। সকল ধর্মের মূলবাণী হচ্ছে মানবকল্যাণ। তাই ধর্মের অপব্যাখ্যা করে স্বার্থান্বেষী মহল যাতে সমাজে অশান্তি ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সে ব্যাপারে সকলকে সজাগ থাকতে হবে। শান্তি, সহমর্মিতা, ত্যাগ ও ভ্রাতৃত্ববোধের শিক্ষা দেয়।তিনি বলেন, “আসুন, আমরা সকলে পবিত্র ঈদুল-আযহার মর্মবাণী অন্তরে ধারণ করে নিজ নিজ অবস্থান থেকে জনকল্যাণমুখী কাজে অংশ গ্রহণ করি এবং বৈষম্যহীন সুখী, সমৃদ্ধ ও শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ গড়ে তুলি।এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন, ” আমি মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে প্রিয় মাতৃভূমি ও মুসলিম উম্মাহর ও আমার নির্বাচনী এলাকা বাকেরগঞ্জ-৬ আসনের জাতি ধর্ম ধর্ম নির্বিশেষে সকলের উত্তরোত্তর উন্নতি, সমৃদ্ধি ও অব্যাহত শান্তি কামনা করছি।”জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু, জয় হোক এদেশের মেহনতি মানুষের।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে লড়তে চান দুঃসময়ের কান্ডারী ত্যাগি নেতা ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।।

আপডেট সময় : ০৯:০৪:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে লড়তে চান দুঃসময়ের কান্ডারী ত্যাগি নেতা ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।।

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৬ আসন(উন্নয়ন বঞ্চিত বাকেরগঞ্জ) থেকে বারবার মনোনয়ন বঞ্চিত ও দলের দুঃসময়ের ত্যাগী নেতাবাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের ভাইস চেয়ারম্যান,আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ কমিটির সম্পাদক, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি,বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট)ছাএলীগের সাবেক সভাপতি, ৯০’এর দশকের স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের সময় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট)ছাএলীগের সাবেক মেধাবী ছাত্র বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে থেকে নৌকা প্রতিক নিয়ে লড়তে চান ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু। তিনি তার নির্বাচনী এলাকা বাকেরগঞ্জ বাসীর দোস্ত অসহায় ও গরীব দুঃখীদের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে তার প্রদত্ত ঈদ উপহার পবিত্র ঈদুল ঈদুল ফিতর এবং ঈদুল আযহা উপলক্ষে বিতরণ করেছেন।তাছাড়া তিনি তার নির্বাচনী এলাকায় কর্মীবান্ধব হিসেবে বেশ পরিচিতি লাভ করেছেন। তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একান্ত বিশ্বাস্ত ও আস্থাভাজন হওয়ার কারণে ইতিপূর্বে তিনি একাধিকবার দলীয় মনোনয়ন পেলেও তৎকালীন জোটের স্বার্থে তার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধ্য হোন। তাছাড়া ও তিনি ২০০১ সালে জামাত-বিএনপি জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর অনেক সুবিধাভোগী নেতারা দেশ ত্যাগ করলেও তিনি তিনি তার জন্মভূমিতে থেকেই ২০০১-২০০৬ সালের তৎকালীন জামাত-বিএনপি’র স্টিম রোলারের নির্যাতন সহ্য করে বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে থাকিয়া সকল প্রকার আন্দোলনের সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিলেন। তিনি এই প্রতিবেদককে প্রথমেই জানিয়ে বলেন,আমিশ্রদ্ধার সাথে স্মরন করে, ১৯৫২ সাল থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত ভাষা ও দেশের জন্য যাহারা শাহাদাত বরন করেছেন তাহাদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।আমি আরো শ্রদ্ধার সাথে স্মরন করব হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী বাংলার রাখাল রাজা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানকে এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট পাকিস্তানী দোষরদের বুলেটের আঘাতে তাহার পরিবারের শহীদের প্রতি গভীর সমবেদনা ও শোক প্রকাশ করেন এবং বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন। তিনি আরো বলেন, আমি গর্বের সাথে স্মরন করছি ১৯৭১ সালের পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী থেকে ছিনিয়ে আনা লাল সবুজের বাংলাদেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের, সেই সাথে স্মরন করছি বাকেরগঞ্জ উপজেলাধীন সকল নেতৃবৃন্দসহ যাহারা পরোলোকগমন করেছেন তাহাদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত বিনম্র শ্রদ্ধার সাথে কামনা করি।সম্ভাব্য এই আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু বলেন, সংসদীয় আসন উন্নয়ন বঞ্চিত বাকেরগঞ্জ -০৬ থেকে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ স্বাধীনতার স্বপক্ষের রাজণৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের বর্তমান সভানেত্রী, গণতন্ত্রের মানসকন্যা,ডিজিটাল বাংলার স্থপতি, উন্নয়নের ধারক, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী, জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে আগামী জাতিয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ইচ্ছা পোষন করছি।তিনি আক্ষেপ করে আরো বলেন, আগা বাকের খানের সেই স্মৃতি বিজারিত বার আউলিয়াদের পুনভূমি সাবেক বাকেরগঞ্জ জেলার ১৪ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা গঠিত এই উপজেলায় বিন্দুমাত্র উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। বিজ্ঞ এই প্রকৌশলী বলেন, আমি আমার নির্বাচনী উদ্দেশ্য, পরিকল্পনা জন কল্যানে আমার সমাজসেবা মূলক চিন্তা ভাবনা আপনাদের মাধ্যমে প্রিয় বাকেরগঞ্জ বাসীস ও পৌরবাসীকে জানাতে চাই আমার নির্বাচনী উদ্দেশ্য বাকেরগঞ্জ উপজেলার জনগনের নানাবিধ সমস্যা চিহ্নিতকরন এবং তা সমাধান করা। তাছাড়া বাকেরগঞ্জ উপজেলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে হিসেবে গড়ে তোলা সহ সর্বপরি উপজেলা বাসীর সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে পথচলা। এছাড়া সততা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও কর্ম এই চার আদর্শের ভিত্তিতে আপনাদের সাথে কাজ করার উদ্দেশ্য নিয়েই আপনাদের সাথে আশা ও নির্বাচনী ঘোষনা দেওয়া।
তিনি আরো বলেন, আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও মানসিক প্রধানমন্ত্রী আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিলে আমি আপনাদের আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও কৃষকলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে বসে আপনাদেরকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নিব।আশা করি আগামী দিন গুলিতে আমাকে সহযোগীতা করবেন।তিনি বলেন, হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি সকল নেতৃবৃন্দ জনপ্রতিনিধিগণ এবং সর্বস্তরের জনগণ গত জেলা পরিষদ নির্বাচনে আমার ওয়াদা ছিল আপনাদের জন্য কাজ করা। যে ভাবে বিগত নির্বাচনে আপনারা আমাকে সার্বিক সহযোগীতা করেছেন, সে জন্য আমি ও আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।প্রিয়, বাকেরগঞ্জ উপজেলা বাসি আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন, আগামী দিনগুলিতে আমি যেন আপনাদের সাথে কাজ করতে পারি, আমি কাজ করতে চাই, জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে আমার দেশের জন্য, আপনাদের জন্য । জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, জয় হোক মেহনতি জনতার।বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত। এখানে সকল ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম ও আচার অনুষ্ঠানাদি পালন করে আসছে। এটি বাংলাদেশের সম্প্রীতির এক অনুপম ঐতিহ্য। সকল ধর্মের মূলবাণী হচ্ছে মানবকল্যাণ। তাই ধর্মের অপব্যাখ্যা করে স্বার্থান্বেষী মহল যাতে সমাজে অশান্তি ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সে ব্যাপারে সকলকে সজাগ থাকতে হবে। শান্তি, সহমর্মিতা, ত্যাগ ও ভ্রাতৃত্ববোধের শিক্ষা দেয়।তিনি বলেন, “আসুন, আমরা সকলে পবিত্র ঈদুল-আযহার মর্মবাণী অন্তরে ধারণ করে নিজ নিজ অবস্থান থেকে জনকল্যাণমুখী কাজে অংশ গ্রহণ করি এবং বৈষম্যহীন সুখী, সমৃদ্ধ ও শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ গড়ে তুলি।এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন, ” আমি মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে প্রিয় মাতৃভূমি ও মুসলিম উম্মাহর ও আমার নির্বাচনী এলাকা বাকেরগঞ্জ-৬ আসনের জাতি ধর্ম ধর্ম নির্বিশেষে সকলের উত্তরোত্তর উন্নতি, সমৃদ্ধি ও অব্যাহত শান্তি কামনা করছি।”জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু, জয় হোক এদেশের মেহনতি মানুষের।