ঢাকা ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গজারিয়া দুর্বত্তের দেওয়া আগুনে পুড়ে সবস্বপ্ন শেষ হলো ভাইরাল হওয়া শ্রমিক হানিফের

ওসমান গনি মুন্সীগঞ্জ থেকে।
  • আপডেট সময় : ০৯:৫১:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪ ১০১ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মুন্সীগঞ্জে গজারিয়া উপজেলার তেতৈতলাতে রাতের আধারে দুর্বত্তের দেওয়া আগুনে পুরে ছাই হয়ে গেল নিরীহ পরিবহন শ্রমিক হানিফ প্রধানের স্বপ্নের ঘর।কলেজ ও স্কুল পড়ুয়া দুই কন্যা,আড়াই বছরের শিশু ছেলে নিয়ে তিনি এখন খোলা আকাশের নিচে।

মর্মান্তিক এই ঘটনাটি শনিবার(২১ জানুয়ারী) রাত ১২রাত ঘটিকায় উপজেলার বালুয়াকান্দী ইউনিয়ন এর তেতৈতলা দড়িগাঁও উকিল উদ্দিন এর বড় ছেলে অতি সাধারণ পরিবহন শ্রমিক হানিফ মিয়ার ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।তিনি জানান রাত ১০টার দিকে স্ত্রী,সন্তানদের নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন হঠাৎ ঘুম ভেঙে দেখেন ঘরের তিন পাশে আগুন জ্বলছে, তখন তিনি স্ত্রী,সন্তানদের নিয়ে কোন রকম প্রাণ নিয়ে বাহিরে আসতে পারলেও কোন মালপত্র বের করতে পারেন নাই।অশ্রুঝরা কন্ঠে তিনি আরো বলেন,আমি কলেজ,স্কুল পড়ুয়া দুই মেয়ে আর এক ছেলেকে নিয়ে কর্ম করে জীবন যাবন করছি,তখন আমার সব শেষ।তিনি আরও জানান,স্থানীয় এমপিকে এক বক্তব্যে তিনি ভাইরাল হয়েছিলেন, গ্রামের এক প্রভাবশালী বসত ভিটার এই জায়গাটা দখলের চেষ্টায়ও ছিলেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো:রিটু প্রধান হত দরিদ্র শ্রমিক হানিফ এর পাশে দাঁড়ানোর জন্য সমাজের বিত্তবানদের প্রতি আহবান জানিয়ে,প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন ও দোষীদের শনাক্তের জোড় দাবি জানান।

এ বিষয়ে গজারিয়া ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর ইনচার্জ মো:রিফাত মল্লিক জানান,আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিভাই,বিষয়টি আমার কাছেও ঝামেলার মনে হয়েছে,তবে তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।
গজারিয়ায় থানার অফিসার ইনচার্জ মো:রাজিব খাঁন বলেন,ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি,তদন্ত সাপেক্ষে আইনী প্রক্রিয়া গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

গজারিয়া দুর্বত্তের দেওয়া আগুনে পুড়ে সবস্বপ্ন শেষ হলো ভাইরাল হওয়া শ্রমিক হানিফের

আপডেট সময় : ০৯:৫১:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪

মুন্সীগঞ্জে গজারিয়া উপজেলার তেতৈতলাতে রাতের আধারে দুর্বত্তের দেওয়া আগুনে পুরে ছাই হয়ে গেল নিরীহ পরিবহন শ্রমিক হানিফ প্রধানের স্বপ্নের ঘর।কলেজ ও স্কুল পড়ুয়া দুই কন্যা,আড়াই বছরের শিশু ছেলে নিয়ে তিনি এখন খোলা আকাশের নিচে।

মর্মান্তিক এই ঘটনাটি শনিবার(২১ জানুয়ারী) রাত ১২রাত ঘটিকায় উপজেলার বালুয়াকান্দী ইউনিয়ন এর তেতৈতলা দড়িগাঁও উকিল উদ্দিন এর বড় ছেলে অতি সাধারণ পরিবহন শ্রমিক হানিফ মিয়ার ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।তিনি জানান রাত ১০টার দিকে স্ত্রী,সন্তানদের নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন হঠাৎ ঘুম ভেঙে দেখেন ঘরের তিন পাশে আগুন জ্বলছে, তখন তিনি স্ত্রী,সন্তানদের নিয়ে কোন রকম প্রাণ নিয়ে বাহিরে আসতে পারলেও কোন মালপত্র বের করতে পারেন নাই।অশ্রুঝরা কন্ঠে তিনি আরো বলেন,আমি কলেজ,স্কুল পড়ুয়া দুই মেয়ে আর এক ছেলেকে নিয়ে কর্ম করে জীবন যাবন করছি,তখন আমার সব শেষ।তিনি আরও জানান,স্থানীয় এমপিকে এক বক্তব্যে তিনি ভাইরাল হয়েছিলেন, গ্রামের এক প্রভাবশালী বসত ভিটার এই জায়গাটা দখলের চেষ্টায়ও ছিলেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো:রিটু প্রধান হত দরিদ্র শ্রমিক হানিফ এর পাশে দাঁড়ানোর জন্য সমাজের বিত্তবানদের প্রতি আহবান জানিয়ে,প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন ও দোষীদের শনাক্তের জোড় দাবি জানান।

এ বিষয়ে গজারিয়া ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর ইনচার্জ মো:রিফাত মল্লিক জানান,আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিভাই,বিষয়টি আমার কাছেও ঝামেলার মনে হয়েছে,তবে তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।
গজারিয়ায় থানার অফিসার ইনচার্জ মো:রাজিব খাঁন বলেন,ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি,তদন্ত সাপেক্ষে আইনী প্রক্রিয়া গ্রহণ করা হবে।