ঢাকা ০৫:১৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গজারিয়া সাংবাদিক মাজহারুল ইসলামের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম মফিজুল ইসলামের রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

ওসমান গনি মুন্সিগঞ্জ থেকে।
  • আপডেট সময় : ০২:১৬:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪ ১৬ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মুন্সিগঞ্জ গজারিয়া উপজেলা একাত্তর টিভির নির্বাহী প্রযোজক ও সাংবাদিক
মাজহারুল ইসলাম মাসুম ভাইয়ের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা
এ কে এম মফিজুল ইসলামের(৭০) আর নেই।

ভবেরচর কলেজ রোড এলাকায় তার নিজ বাসভবনে হৃদরোগ আক্রান্ত হয়ে মফিজুল ইসলাম ইন্তেকাল করেন তিনি। একাত্তরের রণাঙ্গনের এই যোদ্ধার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। গজারিয়া বাসিন্দা মফিজুল ইসলাম এক ছেলে, এক মেয়ে, নাতি-সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী আত্মীয় স্বজন
রেখে গেছেন। তিনি মরহুম সামুদ আলী সরকার সন্তান।

দুপুরে ভবেরচর কলেজ রোড মাঠ প্রাঙ্গণে গজারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাম্মি কায়সার বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম মফিজুল ইসলামের মরদেহে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন জানাজার আগে বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজুল ইসলামকে গার্ড অব অনার’ প্রদান করা হয়। এ সময় গজারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার ( ভুমি) শাম্মি কায়সার উপস্থিত ছিলেন। আরোও উপস্থিত ছিলেন ভবেরচর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শহিদ ইঞ্জিনিয়ার লিটন, ইমামপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হাফিজুজ্জামান খান জিতু, টেংগারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল হাসান ফরাজি এরপর জানাজায় অংশ নেন রাজনীতিবিদ, সমাজসেবী, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

এ সময় পুলিশের একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এবং রাষ্ট্রের পক্ষে সালাম গ্রহণ করেন। পরে জানাজা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়নের গোরস্থানে দাফন করা হয়।
এদিকে, বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান একাত্তর টিভির নির্বাহী প্রযোজক ও সাংবাদিক মাজহারুল ইসলাম মাসুম জানান, ‘আমার আব্বু আর নেই। সকলের কাছে দোয়া চাই,আব্বুর জন্য দু হাত জোড় করে সকলের কাছে ক্ষমা চাই। আমার আব্বুকেও সকলে মাফ করে দিয়েন গজারিয়া প্রেসক্লাবের পক্ষে থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজুল ইসলাম এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন।তারা মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

গজারিয়া সাংবাদিক মাজহারুল ইসলামের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম মফিজুল ইসলামের রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

আপডেট সময় : ০২:১৬:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪

মুন্সিগঞ্জ গজারিয়া উপজেলা একাত্তর টিভির নির্বাহী প্রযোজক ও সাংবাদিক
মাজহারুল ইসলাম মাসুম ভাইয়ের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা
এ কে এম মফিজুল ইসলামের(৭০) আর নেই।

ভবেরচর কলেজ রোড এলাকায় তার নিজ বাসভবনে হৃদরোগ আক্রান্ত হয়ে মফিজুল ইসলাম ইন্তেকাল করেন তিনি। একাত্তরের রণাঙ্গনের এই যোদ্ধার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। গজারিয়া বাসিন্দা মফিজুল ইসলাম এক ছেলে, এক মেয়ে, নাতি-সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী আত্মীয় স্বজন
রেখে গেছেন। তিনি মরহুম সামুদ আলী সরকার সন্তান।

দুপুরে ভবেরচর কলেজ রোড মাঠ প্রাঙ্গণে গজারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাম্মি কায়সার বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম মফিজুল ইসলামের মরদেহে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন জানাজার আগে বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজুল ইসলামকে গার্ড অব অনার’ প্রদান করা হয়। এ সময় গজারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার ( ভুমি) শাম্মি কায়সার উপস্থিত ছিলেন। আরোও উপস্থিত ছিলেন ভবেরচর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শহিদ ইঞ্জিনিয়ার লিটন, ইমামপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হাফিজুজ্জামান খান জিতু, টেংগারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল হাসান ফরাজি এরপর জানাজায় অংশ নেন রাজনীতিবিদ, সমাজসেবী, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

এ সময় পুলিশের একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এবং রাষ্ট্রের পক্ষে সালাম গ্রহণ করেন। পরে জানাজা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়নের গোরস্থানে দাফন করা হয়।
এদিকে, বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান একাত্তর টিভির নির্বাহী প্রযোজক ও সাংবাদিক মাজহারুল ইসলাম মাসুম জানান, ‘আমার আব্বু আর নেই। সকলের কাছে দোয়া চাই,আব্বুর জন্য দু হাত জোড় করে সকলের কাছে ক্ষমা চাই। আমার আব্বুকেও সকলে মাফ করে দিয়েন গজারিয়া প্রেসক্লাবের পক্ষে থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজুল ইসলাম এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন।তারা মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।