ঢাকা ০৭:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভালুকায় আলোচিত স্কুল ছাত্রী রিয়া হত‍্যাকান্ড! ঘাতক রিপন:৭২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার-

মোঃ জাহিদ খান ভালুকা (ময়মনসিংহ) থেকে।
  • আপডেট সময় : ০৬:১৯:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২৩ ৭১ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভালুকায় আলোচিত স্কুল ছাত্রী রিয়া হত‍্যাকান্ড! ঘাতক রিপন:৭২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার-

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় নবম শ্রেণির ছাত্রী রাকিয়া সুলতানা রিয়াকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করার মূল আসামিকে ৭২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার করেছে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ।

শুক্রবার বিকেলে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর থানার ঘোড়াই হাটুভাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড থেকে রিয়ার হত‍্যার মূল আসামি গ্রেপ্তার করে ভালুকা মডেল থানা পুলিশের একটি দল।

গ্রেপ্তার রিপন মিয়া (২৯) টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার ছিলিমপুর ইউনিয়নের মানিক মিয়ার ছেলে।

শনিবার (১৪ই অক্টোবর ) ময়মনসিংহের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ সুপার মাসুম আহাম্মেদ ভূইয়া ।

আসামি রিপনকে জিজ্ঞাসা বাদে জানা যায়, গত এক বছর আগে রাখিয়া সুলতানা রিয়াকে ইসলামী শরিয়া মোতাবেক বিবাহ করে। বিয়ের ১৫ দিন পর রিপন সৌদি আরব চলে যায়। কিছু দিন পর রিয়া আর সংসার করবে না বলে জানিয়ে তার পরিবার বিয়েতে কাবিন হিসেবে নির্ধারিত আট লক্ষ টাকা দিয়ে দিতে বলে। পরবর্তীতে রিয়াও তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। এক পর্যায়ে রিপন জানতে পারে যে, সে অন্য একজনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেছে। এটি শুনার পর রিপন ক্ষিপ্ত হয়ে কাউকে কিছু না বলে গত ২ অক্টোবর ২০২৩ তারিখ সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশে চলে আসে এবং টাঙ্গাইল জেলার সখিপুর থানা এলাকায় অবস্থান করে। ঘটনার আগের দিন ৮ অক্টোবর ২০২৩ তারিখ সকাল ১১ টায় সে বাটাজোর বিএম উচ্চ বিদ্যালয়ের গেটে রিয়াকে অন্য একটি ছেলের সাথে দেখতে পায় এবং পরদিন সখিপুর বাজার থেকে একটি ধাঁরালো দা ক্রয় করে রিয়া আসা-যাওয়ার পথে সুবিধাজনক স্থানে অপেক্ষা করতে থাকে এবং দুপুর ১২টায় রিয়ার সাথে দেখা হওয়া মাত্র তাকে জনৈক নুরুল ইসলামের ধানক্ষেতে ফেলে হাতে থাকা ধারালো দা দিয়ে মাথা ও ঘাড়সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে পালিয়ে যায়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ভালুকা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কাজল হোসেন বলেন, তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে হত্যায় ব্যবহৃত দা ঘটনাস্থল ধানখেত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কামাল হোসেন জানান, আমরা তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ৭২ ঘন্টার মধ্যে আসামি কে গ্রেফতার করে সক্ষম হয়েছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ভালুকায় আলোচিত স্কুল ছাত্রী রিয়া হত‍্যাকান্ড! ঘাতক রিপন:৭২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার-

আপডেট সময় : ০৬:১৯:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২৩

ভালুকায় আলোচিত স্কুল ছাত্রী রিয়া হত‍্যাকান্ড! ঘাতক রিপন:৭২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার-

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় নবম শ্রেণির ছাত্রী রাকিয়া সুলতানা রিয়াকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করার মূল আসামিকে ৭২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার করেছে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ।

শুক্রবার বিকেলে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর থানার ঘোড়াই হাটুভাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড থেকে রিয়ার হত‍্যার মূল আসামি গ্রেপ্তার করে ভালুকা মডেল থানা পুলিশের একটি দল।

গ্রেপ্তার রিপন মিয়া (২৯) টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার ছিলিমপুর ইউনিয়নের মানিক মিয়ার ছেলে।

শনিবার (১৪ই অক্টোবর ) ময়মনসিংহের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ সুপার মাসুম আহাম্মেদ ভূইয়া ।

আসামি রিপনকে জিজ্ঞাসা বাদে জানা যায়, গত এক বছর আগে রাখিয়া সুলতানা রিয়াকে ইসলামী শরিয়া মোতাবেক বিবাহ করে। বিয়ের ১৫ দিন পর রিপন সৌদি আরব চলে যায়। কিছু দিন পর রিয়া আর সংসার করবে না বলে জানিয়ে তার পরিবার বিয়েতে কাবিন হিসেবে নির্ধারিত আট লক্ষ টাকা দিয়ে দিতে বলে। পরবর্তীতে রিয়াও তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। এক পর্যায়ে রিপন জানতে পারে যে, সে অন্য একজনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেছে। এটি শুনার পর রিপন ক্ষিপ্ত হয়ে কাউকে কিছু না বলে গত ২ অক্টোবর ২০২৩ তারিখ সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশে চলে আসে এবং টাঙ্গাইল জেলার সখিপুর থানা এলাকায় অবস্থান করে। ঘটনার আগের দিন ৮ অক্টোবর ২০২৩ তারিখ সকাল ১১ টায় সে বাটাজোর বিএম উচ্চ বিদ্যালয়ের গেটে রিয়াকে অন্য একটি ছেলের সাথে দেখতে পায় এবং পরদিন সখিপুর বাজার থেকে একটি ধাঁরালো দা ক্রয় করে রিয়া আসা-যাওয়ার পথে সুবিধাজনক স্থানে অপেক্ষা করতে থাকে এবং দুপুর ১২টায় রিয়ার সাথে দেখা হওয়া মাত্র তাকে জনৈক নুরুল ইসলামের ধানক্ষেতে ফেলে হাতে থাকা ধারালো দা দিয়ে মাথা ও ঘাড়সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে পালিয়ে যায়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ভালুকা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কাজল হোসেন বলেন, তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে হত্যায় ব্যবহৃত দা ঘটনাস্থল ধানখেত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কামাল হোসেন জানান, আমরা তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ৭২ ঘন্টার মধ্যে আসামি কে গ্রেফতার করে সক্ষম হয়েছি।