ঢাকা ০৫:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুন্সীগঞ্জে ঢাকা-মাওয়া রেলপথে যাত্রী ট্রেনের গতি পরীক্ষা

ওসমান গনি মুন্সীগঞ্জ থেকে।
  • আপডেট সময় : ১০:২৩:১৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩ ৮১ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মুন্সীগঞ্জে ঢাকা-মাওয়া রেলপথে যাত্রী ট্রেনের গতি পরীক্ষা করা হয়েছে।আজ(২৫ অক্টোবর) বুধবার পদ্মা সেতুর সঙ্গে যুক্ত করা ঢাকার রেলপথে গতির সক্ষমতার চূড়ান্ত পরীক্ষা করা হয়।সকাল ৮ টা ২০ মিনিটে মাওয়া স্টেশন থেকে ঢাকার কমলাপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় ট্রেনটি।পয়লা নভেম্বর বাণিজ্যিক ট্রেন চালনোর আগে চূড়ান্ত এ পরীক্ষা করে বিশেষজ্ঞ দল।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার মালবাহী ট্রেনের গতি পরীক্ষা করা হবে।এরই মধ্যে মাওয়া- ভাঙ্গা দ্রুতগতির ট্রেনের গতির পরীক্ষার পর জিআইবিআর সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। পদ্মা সেতু সংযোগ প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক-২ ব্রিগেডিয়ার আহমেদ জামিউল ইসলাম বলেন,বুধবার সকালে ৫টি বগি নিয়ে ট্রেনের গতি পরীক্ষা করা হয়।ধলেশ্বরী এবং বুড়িগঙ্গা রেলসেতুও অতিক্রম করে একই গতিতে ট্রেন পৌঁছে ঢাকার কমলাপুর।

এ সময় ট্রেনে দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীরা উপস্থিত ছিলেন।
তিনি আরও বলেন,দ্রুতগতির ট্রেন ভ্রমণ মানুষের জন্য আরামদায়ক হবে।ঢাকা থেকে মাওয়া আধাঘণ্টা এবং ভাঙ্গা পর্যন্ত যাত্রী ট্রেনে এক ঘণ্টায় পৌঁছানো যাবে।প্রযুক্তির ব্যবহারে দ্রুতগতির রেললাইন নির্মাণ হয়েছে নিখুঁতভাবে।

চূড়ান্ত পরীক্ষার পরই সুফল পাবে দেশের মানুষ।মাওয়া- ঢাকা রুটের ১৭ কিলোমিটার পাথরবিহীন এবং ২৩ কিলোমিটার পাথরসহ রেললাইন স্থাপন করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মুন্সীগঞ্জে ঢাকা-মাওয়া রেলপথে যাত্রী ট্রেনের গতি পরীক্ষা

আপডেট সময় : ১০:২৩:১৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩

মুন্সীগঞ্জে ঢাকা-মাওয়া রেলপথে যাত্রী ট্রেনের গতি পরীক্ষা করা হয়েছে।আজ(২৫ অক্টোবর) বুধবার পদ্মা সেতুর সঙ্গে যুক্ত করা ঢাকার রেলপথে গতির সক্ষমতার চূড়ান্ত পরীক্ষা করা হয়।সকাল ৮ টা ২০ মিনিটে মাওয়া স্টেশন থেকে ঢাকার কমলাপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় ট্রেনটি।পয়লা নভেম্বর বাণিজ্যিক ট্রেন চালনোর আগে চূড়ান্ত এ পরীক্ষা করে বিশেষজ্ঞ দল।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার মালবাহী ট্রেনের গতি পরীক্ষা করা হবে।এরই মধ্যে মাওয়া- ভাঙ্গা দ্রুতগতির ট্রেনের গতির পরীক্ষার পর জিআইবিআর সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। পদ্মা সেতু সংযোগ প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক-২ ব্রিগেডিয়ার আহমেদ জামিউল ইসলাম বলেন,বুধবার সকালে ৫টি বগি নিয়ে ট্রেনের গতি পরীক্ষা করা হয়।ধলেশ্বরী এবং বুড়িগঙ্গা রেলসেতুও অতিক্রম করে একই গতিতে ট্রেন পৌঁছে ঢাকার কমলাপুর।

এ সময় ট্রেনে দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীরা উপস্থিত ছিলেন।
তিনি আরও বলেন,দ্রুতগতির ট্রেন ভ্রমণ মানুষের জন্য আরামদায়ক হবে।ঢাকা থেকে মাওয়া আধাঘণ্টা এবং ভাঙ্গা পর্যন্ত যাত্রী ট্রেনে এক ঘণ্টায় পৌঁছানো যাবে।প্রযুক্তির ব্যবহারে দ্রুতগতির রেললাইন নির্মাণ হয়েছে নিখুঁতভাবে।

চূড়ান্ত পরীক্ষার পরই সুফল পাবে দেশের মানুষ।মাওয়া- ঢাকা রুটের ১৭ কিলোমিটার পাথরবিহীন এবং ২৩ কিলোমিটার পাথরসহ রেললাইন স্থাপন করা হয়েছে।