ঢাকা ০৮:২৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে ২ জনের মনোনয়নপত্র জমা

ওসমান গনি মুন্সীগঞ্জ থেকে।
  • আপডেট সময় : ০৯:৩৬:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৪৯ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ২ জন।তারা হলেন মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার সাবেক দুই বারের সফল নির্বাচিত মেয়র বর্তমান মুন্সীগঞ্জ- ৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব এমপি মহোদ্বয়ের সহধর্মীনি চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিন।

আরেক জন হলো মুন্সীগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম মাহাতাব উদ্দিন কল্লোল।

এ উপ-নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমাকে কেন্দ্র করে চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিনের পক্ষে সকাল থেকে জেলা পরিষদের সামনে জড়ো হয় হাজার হাজার নেতাকর্মী।উপস্থিত জনতার একটাই দাবী মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিনকেই মেয়র হিসেবে পেতে চায় তারা।

পরে মাননীয় সংসদ সদস্য হাজী ফয়সাল বিপ্লবের পিতা জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চীফ সিকিউরিটি অফিসার মুন্সীগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহিউদ্দিন সাহেবের সাথে দেখা করে দোয়া নিয়ে জেলা নির্বাচন কমিশন অফিসে নির্বাচন কমিশনার বশির আহম্মেদের নিকট মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিন।মনোনয়নপত্র জমা শেষে চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিন সাংবাদিকদের দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন,মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার দুইবারের নির্বাচিত সফল মেয়র ছিলেন আমার স্বামী বর্তমান এমপি হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব।তিনি গত দ্বদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি পদে অংশ নেওয়ায় মেয়র পদ থেকে সেচ্ছায় পদত্যাগ করে সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এমপি নির্বাচন করেন এবং বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন।আর তিনি মেয়র থাকাকালিন সময়ে এই পৌরসভার ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তাহার রেখে যাওয়া কিছু অসমাপ্ত কাজ ও উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে এই উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলাম পৌরবাসীর পুর্ণ সমর্থন নিয়ে।আশাকরি আসন্ন মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচন একটি অবাধ সুষ্ঠ নির্বাচন হবে।যেভাবে পৌরসভার জনগন আমাকে সাড়া দিয়েছে এতে আশাকরি বিপুল ভোটে নির্বাচনে জয়লাভ করব। মেয়রপদে নির্বাচিত হলে ইনশাআল্লাহ মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখব।

জেলা নির্বাচন কমিশনার মো:বশির আহম্মেদ বলেন,১৩ ফেব্রুয়ারী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারী যাছাই- বাছাই,২৩ ফেব্রুয়ারী প্রতীক বরাদ্দ এবং আগামী ৯ মার্চ মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে ২ জনের মনোনয়নপত্র জমা

আপডেট সময় : ০৯:৩৬:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ২ জন।তারা হলেন মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার সাবেক দুই বারের সফল নির্বাচিত মেয়র বর্তমান মুন্সীগঞ্জ- ৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব এমপি মহোদ্বয়ের সহধর্মীনি চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিন।

আরেক জন হলো মুন্সীগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম মাহাতাব উদ্দিন কল্লোল।

এ উপ-নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমাকে কেন্দ্র করে চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিনের পক্ষে সকাল থেকে জেলা পরিষদের সামনে জড়ো হয় হাজার হাজার নেতাকর্মী।উপস্থিত জনতার একটাই দাবী মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিনকেই মেয়র হিসেবে পেতে চায় তারা।

পরে মাননীয় সংসদ সদস্য হাজী ফয়সাল বিপ্লবের পিতা জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চীফ সিকিউরিটি অফিসার মুন্সীগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহিউদ্দিন সাহেবের সাথে দেখা করে দোয়া নিয়ে জেলা নির্বাচন কমিশন অফিসে নির্বাচন কমিশনার বশির আহম্মেদের নিকট মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিন।মনোনয়নপত্র জমা শেষে চৌধুরী ফাহরিয়া আফরিন সাংবাদিকদের দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন,মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার দুইবারের নির্বাচিত সফল মেয়র ছিলেন আমার স্বামী বর্তমান এমপি হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব।তিনি গত দ্বদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি পদে অংশ নেওয়ায় মেয়র পদ থেকে সেচ্ছায় পদত্যাগ করে সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এমপি নির্বাচন করেন এবং বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন।আর তিনি মেয়র থাকাকালিন সময়ে এই পৌরসভার ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তাহার রেখে যাওয়া কিছু অসমাপ্ত কাজ ও উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে এই উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলাম পৌরবাসীর পুর্ণ সমর্থন নিয়ে।আশাকরি আসন্ন মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচন একটি অবাধ সুষ্ঠ নির্বাচন হবে।যেভাবে পৌরসভার জনগন আমাকে সাড়া দিয়েছে এতে আশাকরি বিপুল ভোটে নির্বাচনে জয়লাভ করব। মেয়রপদে নির্বাচিত হলে ইনশাআল্লাহ মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখব।

জেলা নির্বাচন কমিশনার মো:বশির আহম্মেদ বলেন,১৩ ফেব্রুয়ারী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারী যাছাই- বাছাই,২৩ ফেব্রুয়ারী প্রতীক বরাদ্দ এবং আগামী ৯ মার্চ মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।