ঢাকা ০৮:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলছে ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদান

নিজস্ব প্রতিবেদক।
  • আপডেট সময় : ০৯:৩২:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ৮২ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলছে ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদান

নগরীর বটতলা ১০১ নং নবআদর্শ বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলছে পাঠদান।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে
বিদ্যলয় টির একটি ভবনে সিলিং খসে পরছে ও জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে , এতে যেকোনো সময় হতে পারে বড় কোন দুর্ঘটনা, মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে প্রাক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদের সিলিং ভালো না থাকায়, উপর থেকে ফ্যান খসে পরে শিশু শ্রেণীর এক শিক্ষার্থী আহত হয়।
এ বিষয়ে ওই স্কুলের সভাপতি টুনু হোসেন, জানায় ওই স্কুলে দীর্ঘদিন যাবত কোন বরাদ্দ আসছে না তাই স্কুলের কোন সংস্কার করা যাচ্ছে না। স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ইয়াসমিন বেগম, জানায় স্লিপের বরাদ্দ ৫০ হাজার টাকা আসে তা দিয়ে টুকিটাকি কাজ করাতেই তা খরচ হয়ে যায়, তাছাড়া স্কুলে নতুন ভবন নির্মাণের জন্য আবেদন করা হয়েছে । এদিকে গত ২০১৮/২০১৯ সালে ২ লক্ষ টাকার একটি বরাদ্দ এসেছিল তা কমিটির মাধ্যমে স্কুলের উন্নয়নে কাজে খরচ করা হয়েছিল। ওই স্কুলের অভিভাবকদের দাবি দ্রুত ওই স্কুলের সংস্কার করা হোক এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা দের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলছে ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদান

আপডেট সময় : ০৯:৩২:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলছে ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদান

নগরীর বটতলা ১০১ নং নবআদর্শ বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলছে পাঠদান।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে
বিদ্যলয় টির একটি ভবনে সিলিং খসে পরছে ও জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে , এতে যেকোনো সময় হতে পারে বড় কোন দুর্ঘটনা, মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে প্রাক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদের সিলিং ভালো না থাকায়, উপর থেকে ফ্যান খসে পরে শিশু শ্রেণীর এক শিক্ষার্থী আহত হয়।
এ বিষয়ে ওই স্কুলের সভাপতি টুনু হোসেন, জানায় ওই স্কুলে দীর্ঘদিন যাবত কোন বরাদ্দ আসছে না তাই স্কুলের কোন সংস্কার করা যাচ্ছে না। স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ইয়াসমিন বেগম, জানায় স্লিপের বরাদ্দ ৫০ হাজার টাকা আসে তা দিয়ে টুকিটাকি কাজ করাতেই তা খরচ হয়ে যায়, তাছাড়া স্কুলে নতুন ভবন নির্মাণের জন্য আবেদন করা হয়েছে । এদিকে গত ২০১৮/২০১৯ সালে ২ লক্ষ টাকার একটি বরাদ্দ এসেছিল তা কমিটির মাধ্যমে স্কুলের উন্নয়নে কাজে খরচ করা হয়েছিল। ওই স্কুলের অভিভাবকদের দাবি দ্রুত ওই স্কুলের সংস্কার করা হোক এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা দের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।