ঢাকা ০৮:৪৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্কুলছাত্রীকে উত্যক্তের অভিযোগে মামলা,

মোঃ মজিবর রহমান শেখ,,
  • আপডেট সময় : ০৮:০৬:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর ২০২৩ ৫৯ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউপির বরুনাগাঁওয়ে অষ্টম শ্রেণীর ১ স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্তের অভিযোগ উঠেছে মো: জুয়েল (২৮) নামে ১ যুবকের বিরুদ্ধে। ৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ঐ ছাত্রীর মা মনি আক্তার (২৭) জুয়েল ও তার পিতা মাতার নাম উল্লেখ করে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। লিখিত অভিযোগে জানা যায়, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বরুনাগাঁও গ্রামের মো: কাদেরের ছেলে মো: জুয়েল স্কুলে যাতায়াতের সময় ঐ স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত করে বিভিন্ন কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। জুয়েল ২টি বিয়ে করলেও তার জুলুম অত্যাচারে স্ত্রীদের সাথে তালাক হয়ে যায়। এ অবস্থায় ঐ স্কুল ছাত্রী ও তার বান্ধবীকে স্কুল যাতায়াতের সময় উত্যক্তের বিষয়ে স্থানীয় ভাবে শালিস বৈঠকের মাধ্যমে সমাধান হয়। পরে ক্ষিপ্ত হয়ে জুয়েল তার উত্যক্তের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয়। এ অবস্থায় ৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ঐ স্কুল ছাত্রী সকালে বাড়ি থেকে স্কুলের উদ্দেশ্যে বের হয়। পথিমধ্যে জুয়েলের বাড়ির সামনে পৌছালে সে ঐ ছাত্রীকে হাত ও মুখ চেপে ধরে টানা হেচড়া করে বাড়ির ভেতরে নিয়ে যেতে থাকে। ঐ স্কুল ছাত্রী চিৎকার-চেচামেচী করলে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে রক্ষা করে। বিষয়টি জুয়েলের পিতা মাতাকে জানালে তারা জানায় যে, তাদের ছেলে যা ইচ্ছা করতে পারে। লিখিত অভিযোগে মো: জুয়েল (২৮), তার পিতা মো: কাদের (৫২) ও তার মা মোছা: শান্তি বেগম (৪৫) কে আসামী করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

স্কুলছাত্রীকে উত্যক্তের অভিযোগে মামলা,

আপডেট সময় : ০৮:০৬:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর ২০২৩

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউপির বরুনাগাঁওয়ে অষ্টম শ্রেণীর ১ স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্তের অভিযোগ উঠেছে মো: জুয়েল (২৮) নামে ১ যুবকের বিরুদ্ধে। ৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ঐ ছাত্রীর মা মনি আক্তার (২৭) জুয়েল ও তার পিতা মাতার নাম উল্লেখ করে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। লিখিত অভিযোগে জানা যায়, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বরুনাগাঁও গ্রামের মো: কাদেরের ছেলে মো: জুয়েল স্কুলে যাতায়াতের সময় ঐ স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত করে বিভিন্ন কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। জুয়েল ২টি বিয়ে করলেও তার জুলুম অত্যাচারে স্ত্রীদের সাথে তালাক হয়ে যায়। এ অবস্থায় ঐ স্কুল ছাত্রী ও তার বান্ধবীকে স্কুল যাতায়াতের সময় উত্যক্তের বিষয়ে স্থানীয় ভাবে শালিস বৈঠকের মাধ্যমে সমাধান হয়। পরে ক্ষিপ্ত হয়ে জুয়েল তার উত্যক্তের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয়। এ অবস্থায় ৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ঐ স্কুল ছাত্রী সকালে বাড়ি থেকে স্কুলের উদ্দেশ্যে বের হয়। পথিমধ্যে জুয়েলের বাড়ির সামনে পৌছালে সে ঐ ছাত্রীকে হাত ও মুখ চেপে ধরে টানা হেচড়া করে বাড়ির ভেতরে নিয়ে যেতে থাকে। ঐ স্কুল ছাত্রী চিৎকার-চেচামেচী করলে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে রক্ষা করে। বিষয়টি জুয়েলের পিতা মাতাকে জানালে তারা জানায় যে, তাদের ছেলে যা ইচ্ছা করতে পারে। লিখিত অভিযোগে মো: জুয়েল (২৮), তার পিতা মো: কাদের (৫২) ও তার মা মোছা: শান্তি বেগম (৪৫) কে আসামী করা হয়েছে।