ঢাকা ০৯:৪১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুড়িগ্রামে ধর্ষণ চেষ্টা মামলার প্রধান আসামী বিশু আলম ময়মনসিংহ থেকে গ্রেফতার

এ আর রাকিবুল হাসান, কুড়িগ্রাম ঃ
  • আপডেট সময় : ০৩:২৩:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুলাই ২০২৩ ১৬৯ বার পড়া হয়েছে
সময়কাল এর সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 কুড়িগ্রামের ঢুষমারা থানার অধিনে রাজীবপুর উপজেলার মোহনগঞ্জ ইউনিয়নে অষ্টম শ্রেনী পড়ূ–য়া এক কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টা মামলার প্রধান আসামী বিশু আলম (২৩) কে ঘটনার প্রায় দুইমাস পলাতক থাকার পর গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (২৯ জুলাই) গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢুষমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান।

গ্রেফতারকৃত বিশু আলম রাজীবপুর উপজেলার কিত্তনটারী এলাকার সায়ের উদ্দিনের ছেলে। তাকে শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ থেকে আটক করে পুলিশ।
পুলিশ জানায়, এর আগে একই মামলায় প্রধান আসামীর সহযোগী আরও তিন জনকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে প্রধান আসামী বিশু আলম পলাতক ছিলেন।
থানা সূত্র জানায়, গত ৬ জুন বিকেল ৩টার দিকে ঢুষমারা থানার আওতাধিন রাজিবপুর উপজেলার মোহনগঞ্জ ইউনিয়নে অষ্টমী শ্রেনীতে পড়ূ–য়া এক কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ঘটে। পরে ওই কিশোরীর পরিবারের পক্ষ থেকে গ্রেফতারকৃত বিশু আলমকে প্রধান আসামী করে ঢুষমারা থানায় মামলা দায়ের করেন।
ওসি মোঃ. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, পলাতক বিশু আলমকে ময়মনসিংহ থেকে গ্রেফতার করে শনিবার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

#

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

কুড়িগ্রামে ধর্ষণ চেষ্টা মামলার প্রধান আসামী বিশু আলম ময়মনসিংহ থেকে গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৩:২৩:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুলাই ২০২৩

 কুড়িগ্রামের ঢুষমারা থানার অধিনে রাজীবপুর উপজেলার মোহনগঞ্জ ইউনিয়নে অষ্টম শ্রেনী পড়ূ–য়া এক কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টা মামলার প্রধান আসামী বিশু আলম (২৩) কে ঘটনার প্রায় দুইমাস পলাতক থাকার পর গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (২৯ জুলাই) গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢুষমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান।

গ্রেফতারকৃত বিশু আলম রাজীবপুর উপজেলার কিত্তনটারী এলাকার সায়ের উদ্দিনের ছেলে। তাকে শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ থেকে আটক করে পুলিশ।
পুলিশ জানায়, এর আগে একই মামলায় প্রধান আসামীর সহযোগী আরও তিন জনকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে প্রধান আসামী বিশু আলম পলাতক ছিলেন।
থানা সূত্র জানায়, গত ৬ জুন বিকেল ৩টার দিকে ঢুষমারা থানার আওতাধিন রাজিবপুর উপজেলার মোহনগঞ্জ ইউনিয়নে অষ্টমী শ্রেনীতে পড়ূ–য়া এক কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ঘটে। পরে ওই কিশোরীর পরিবারের পক্ষ থেকে গ্রেফতারকৃত বিশু আলমকে প্রধান আসামী করে ঢুষমারা থানায় মামলা দায়ের করেন।
ওসি মোঃ. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, পলাতক বিশু আলমকে ময়মনসিংহ থেকে গ্রেফতার করে শনিবার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

#